ভোলায় ২ প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল, ১ জনের স্থগিত

ইয়াছিনুল ইমন, আমাদের ভোলা ।

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে ১৭জন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। ২জনের মনোনয়নপত্র বাতিল এবং ১ জনের মনোনয়নপত্র স্থগিত করা হয়েছে।
রবিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ভোলা জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে ভোলা জেলার ৪ টি আসনের ২০ জন প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাই কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়।
জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক আরিফুজ্জামান মনোনয়ন পত্র যাচাই- বাছাই শেষে ১৭ প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ, কাগজপত্রের ত্রুটির কারণে ২জনের মনোনয়নপত্র বাতিল এবং ১ জনের মনোনয়নপত্র স্থগিত করেন।
ভোলা-১ আসন থেকে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ, জাতীয় পার্টি (এরশাদ) মনোনীত প্রার্থী মোহাম্মদ শাজাহান মিয়া, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ সিদ্দিকুর রহমান মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে।
এই আসনে মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থী মো : মিজানুর রহমান। তিনি নির্বাচনী আইন অনুযায়ী ভোলা-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থীদের এক শতাংশ ভোটারের সমর্থনের তথ্য ঠিক না থাকায় তার মনোনয়ন বাতিল করা হয়।
ভোলা- ২ ( দৌলতখান- বোরহানউদ্দিন)
ভোলা-২ আসন থেকে মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে বর্তমান সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলী আজম মুকুল, জাতীয় পার্টি(মঞ্জু) মনোনীত প্রার্থী মোঃ গজনবী, বাংলাদেশ সম্মিলিত জাতীয় জোট (কংগ্রেস পার্টি) মনোনীত প্রার্থী মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান,
বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন মনোনীত প্রার্থী শাহেন শাহ মোঃ শামছুদ্দিন মিয়ার মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে।
বাতিল করা হয়েছে বাংলাদেশ কংগ্রেস মনোনীত প্রার্থী এডভোকেট মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম রিটু মনোনয়ন পত্র। তিনি দলীয় মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়ার কাগজ দেখাতে ব্যার্থ হয়েছেন। তাই তার মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়েছে।
এছাড়াও এই আসন থেকে জাতীয় পার্টি (এরশাদ) মনোনীত প্রার্থী মিজানুর রহমান এর মনোনয়ন পত্র স্থগিত করা হয়েছে। তিনি বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য মতে ঋণখেলাপি তালিকায় নাম রয়েছে। যদিও তিনি যদিও তিনি হাইকোর্টে স্থগিত আদেশ করেছেন বলে জানিয়েছেন।
ভোলা -৩ ( লালমোহন-তজুমদ্দিন)
ভোলা-৩ আসন বর্তমান সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী কামাল উদ্দিন, জাতীয় পার্টি ( মঞ্জু) প্রার্থী ফারজানা চৌধুরী,সতন্ত্র প্রার্থী মেজর মো:জসিম উদ্দিন ও মোহাম্মদ আলমগীর হ্যালো মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়।
ভোলা -৪ (চরফ্যাশন -মনপুরা)
ভোলা-৪ আসন থেকে মনোনয়ন পত্র বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে বর্তমান সংসদ সদস্য সাবেক উপমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির প্রার্থী মোঃ আলাউদ্দিন, তৃণমূল বিএনপির মোহাম্মদ হানিফ, জাতীয় পার্টির মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল ফয়েজ মনোনয়ন বৈধ ঘোষনা করা হয়েছে।
ভোলার জেলা প্রশাসক ও জেলা রির্টানিং অফিসার আরিফুজ্জামান বলেন, সুষ্ঠ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এছাড়াও প্রার্থীরা যাতে আচারণ বিধি মেনে চলে সেদিকে বাড়তি নজরদারি থাকবে প্রতিটি আসনে।
৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু করে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলবে প্রার্থীদের আপিল করার সুযোগ। আর ১৭ ডিসেম্বর মনোনয়ন পত্র পত্যাহার এবং ১৮ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে।
নির্বাচনি প্রচার চলবে ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। ভোটগ্রহণ হবে ৭ জানুয়ারি।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

ফেব্রুয়ারি ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জানুয়ারি    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।