ভোলায় যুবলীগ নেতা টিটু হত্যা মামলার প্রধান আসামী আটক

কাজী মহিবুল্লাহ আজাদ, আমাদের ভোলা।
ভোলায় যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম টিটুকে গুলি করে নৃশংস ভাবে হত্যা মামলার প্রধান আসামী চকেট জামালকে ঢাকা থেকে আটক করা হয়েছে। শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) রাতে তাকে আটক করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ভোলা সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি এনায়েত হোসেন।
উল্লেখ্য, গত ১১ নভেম্বর মদনপুর ইউনিয়নের নির্বাচনে নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী নাসির উদ্দিন নান্নু ডাক্তার বিজয়ী হয়। তিনি বিজয়ী হওয়ার পর গত শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) নব নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যানের সমাবেশ ও দাওয়াত খেতে তার নেতাকর্মীসহ লোকজন শুক্রবার মদনপুর চরে যায়। দুপুরে দাওয়াত খেয়ে বিকালে ট্রলার যোগে নাসির উদ্দিন নান্নু ডাক্তার ও তার কর্মীদের নিয়ে এবং যাত্রীসহ প্রায় ৬০/৭০ জন মদনপুর থেকে নাসির মাঝি ঘাটের উদ্দ্যোশে ট্রলারে ফিরছিলো। এ সময় স্পীডবোট থেকে অস্ত্রধারীরা এলোপাথারি গুলি ছুড়ে। এতে মাথায় গুলি বিদ্ধ হয় যুবলীগ নেতা খোরশেদ আলম টিটু। এসময় আবদুল খালেক, হারুনসহ ৩ জন আহত হয়েছে। ইউপি চেয়ারমান নান্নু অল্পের জন্য বেঁচে যায়। চকেট জামাল গ্রুপ এঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ করেন টিটুর স্বজন ও নান্নু চেয়ারম্যান।
এদিকে খোরশেদ আলম টিটু নিহত হওয়ার ঘটনায় পুলিশ আবুল বাশার নামের একজনকে ঘটনার দিন রাতে গ্রেফতার করেছে। এবং ২৭ নভেম্বর জামাল উদ্দিন চকেটকে প্রধান আসামি করে ১৬ জনের বিরুদ্ধে ভোলা সদর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের ভাই হানিফ ভুট্ট। গত ২৯ শে নভেম্বর ও ২ ডিসেম্বর আসামিদের আটক করে আইনের আওতায় আনার জন্য ভোলা প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন করেছেন নিহত টিটুর পরিবারসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

ডিসেম্বর ২০২৩
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« নভেম্বর    
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।