বাঁশরী

মোঃ আঃ কুদদূস

প্রাণের বাসরে বাঁশরীর সুরে

তুমি থাকো দূর,অনেক দূরে

উন্মাদ হই শুনে যাই সেই সুর

বাঁশির সুর কতই না সুমধুর!

রাত বিরাতে বিরহ বেদনায় তোমার হাসিমাখা আল্পনায়

নিরবে ঝড়ে পড়ে অশ্রুজল

সেই জলের রয় নাকো তল।

কেন এই শিশির ঢাকা রাতে

গানে সুর তোলো বাঁশি হাতে

পাগল করে হারাও অগোচরে

একাকী রাতে সব মায়া ছেড়ে।

শিশিরে ভিজে থাকি কান পেতে

সুরের রাগ ভাসায় সাগর স্রোতে

ভিজে ভিজে ভাসি লোনা জলে

হারিয়ে যাই মমতার গহীন তলে।

ভিজিয়ে দিয়ে, নিরবে যাই ভিজে

মেঘ রদ্দুরের খেলায় মাতি নিজে

চুপিসারে চুপিয়ে পড়ে জলধারা

ধরতে গিয়ে ব্যর্থ হই রয় যে অধরা।

বাঁশির সুরে এ অন্তরে ধরে নাচন

নেচে খেলে দেখি তোমার বিচরণ

পাশ দিয়ে হেটে যায়, তবু অচেনা

মনের ব্যথায় ধরি গান, হে সুরঞ্জনা।

৪ ডিসেম্বর ২০১৮ সমিল মুক্তক ছন্দ

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

আগষ্ট ২০১৯
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জুলাই    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।