ভোলা-৩ আসনে বিএনপি সাবেক সভাপতি আলী হায়দার চৌধুরী লড়বেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে

তজুমদ্দিন প্রতিনিধি, আমাদের ভোলা.কম।
জাতিয় সংসদ-১১৭, ভোলা-৩ লালমোহন তজুমদ্দিন আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করার ঘোষনা দিয়েছেন তজুমদ্দিন উপজেলা বিএনপি সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব আলী হায়দার চৌধুরী। গতকাল তার বাস ভবনে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।
রাজনৈতিক ভাবে নিষ্ক্রীয় বিএনপি নেতা একাদশ জাতিয় সংসদ নির্বাচনে কেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়তে চান তা জানিয়ে আলহাজ্ব আলী হায়দার চৌধুরী বলেন, আমি রাজনৈতিক ভাবে কারো প্রতিপক্ষ হতে চাইনা। স্বাধীনতার পর তজুমদ্দিন উপজেলার কোন নাগরিক জাতিয় সংসদে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পায়নি। ভৌগলিক কারনেও তজুমদ্দিনের মানুষ মনোনয়ন দৌড়ে পিছিয়ে থাকে। অবহেলিত তজুমদ্দিনকে এগিয়ে নিতে আমার এই প্রচেস্টা। এই উপজেলার জনগণের সম্মানের কথা চিন্তা করেই নির্বাচনে আগ্রহী হয়েছি।

সমাজ সেবক আলী হায়দার চৌধুরী ৭০ এর দশকের আগে ন্যাপ মোজাফ্ফর থেকে কুঁড়েঘর প্রতিকে নির্বাচন করেছিলেন। তিনি ৮০’র দশকে তজুমদ্দিন উপজেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। ১৯৭০- ৮০ পর্যন্ত তজুমদ্দিন বাজার কমিটির সাধারন সম্পাদক ছিলেন। ১৯৬৮ সালে চাঁদপুর ইউনিয়ন পরিষদে ১ নং ওয়ার্ডে সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৬৮ সালে প্রতিষ্ঠিত ২৩নং মধ্যচাঁদপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জমিদাতা ও ম্যানেজিং কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি নির্বাচিত হন। তার পিতা মরহুম আলহাজ্ব মজিবুর রহমান চৌধুরী, ৭০’র দশকের আগে চাঁদপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। বরিশাল জর্জ কোর্টের জুরি বোর্ডের সদস্য এবং তজুমদ্দিন ঋন শালিস বোর্ডের চেয়ারম্যান ছিলেন। এছাড়া পিতামহ মেহের আলী পাটওয়ারীও ছিলেন চাঁদপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্রেসিডেন্ট। তার প্রচেস্টায় তৎকালীন ভোলার মহকুমা হাকিম (এসডিও) স্কর্ট জর্জ সাহেব কে দিয়ে তজুমদ্দিনে স্কর্ট মোসলেম এমএ স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন যা বর্তমানে চাঁদপুর সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় নামে পরিচালিত হচ্ছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

ডিসেম্বর ২০১৯
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« নভেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।