তজুমদ্দিনে কৃষি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে গাছ বিক্রির অভিযোগ

তজুমদ্দিন সংবাদদাতা, আমাদের ভোলা.কম।

ভোলার তজুমদ্দিনে কৃষি কর্মকর্তা উপজেলা পরিষদের ৬টি গাছ বিক্রি করেছেন। স্থানীয় কাঠ বেপারীরা ওই গাছ কেটে করাত কলে নিয়ে গেছেন।
সুত্র মতে জানা গেছে, উপজেলা পরিষদের অনুমোদন ছাড়াই পরিষদ চত্তরের কৃষি অফিস এলাকার মেহগনি রেইনট্রিসহ ছোট বড় ৬টি কাঠ গাছ বিক্রি করেছেন কৃষি কর্মকর্তা সাজ্জাত হোসেন তালুকদার। রবিবার দুপুরে কেটে নেয়া গাছ ৬টি কতটাকা বিক্রি করেছেন তা তিনি জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন। কাঠ বেপারী আবু তাহের জানান, কৃষি অফিসের লোকদের কাছ থেকে ৬টি গাছ কিনে তা কেটে নিয়ে উত্তর বাজার তাদের করাত কলে রেখেছেন। উপজেলা বিটের বন কর্মকর্তা খন্দকার আরিফুল হক জানান, বন বিভাগের কাছে উপজেলা পরিষদের নতুন কৃষি ভবন প্রাঙ্গনে গাছ নিলাম বা বিক্রি করতে মূল্যনির্ধানের জন্য কোন আবেদন বা আদেশ আমরা পাইনি। কৃষি কর্মকর্তা সাজ্জাত হোসেন তালুকদারের কাছে গাছ বিক্রির বিষয়ে জানতে চাইলে বলেন, অফিসের কাজে গাছগুলো কাটা হয়েছে। আগামী মাসিক সভায় এ বিষয়ে অবহিত করা হবে বলেও তিনি জানান। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ছুটিতে থাকায় বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোশারফ হোসেন দুলাল জানান, পরিষদের গাছ বিক্রির ব্যাপারে কোন আলোচনা হয়নি। কেউ তাকে অবহিত করেন নি। তবে এ ব্যাপরে কার্যদিবসে কৃষি কর্মকর্তা কে তলব করবেন বলে জানান।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

জুলাই ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« জুন  
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!