আবু মিয়ার মরন চিন্তা !!

ইয়াছিনুল ঈমন, আমাদের ভোলা.কম।

জন্মিলেই মরিতে হবে। এই কথাটি চিরন্তর সত্য। তাই জন্ম নিলে মৃত্যুর জন্য সর্বদা প্রস্তুত থাকতে হবে এমনটাই স্বাভাবিক। সমাজের কয়জনই বা এই চিন্তা নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। কিন্তু এই সমাজে কিছু কিছু মানুষ আছেন, যারা মৃত্যুর জন্য সর্বদাই প্রস্তুত থাকেন। তারা মনে করেন এই বুঝি আমাদের মৃত্যু হবে।
এমনই একজন আমাদের আবু মিয়া (৭০)। আবু মিয়া নিজে কষ্টার্জিত অর্থ দিয়ে নিজের জন্য কাফানোর কাপড় কিনলেন। আবার আগামীদিন কবরের জন্য বাঁশ কিনবেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে প্রতিবেদকের বন্ধি হন আবু মিয়া। এ সময় তিনি সবুজকে বলেন, হারাদিন আবর্জনার তোন কুড়াইয়্যা পুরান কাগজ, ভাঙ্গা-চোরা শিশি-বোতল, প্লাষ্টিক ইত্যাদি মালামাল যেগার করার পর তা বেইচ্যা যে টাহা পাই তা দিয়াই সংসার চালাই। মাইয়্যা ২টাকে বিয়ে দিছি। এহন আর চিন্তা নাই। আমি মইর‌্যা গেলে যাতে কারো কোন কষ্ট করতে না হয়, তাই কাফানের কাপড়, বাঁশ, আগরবাতী, গোলাপ জলসহ বিভিন্ন সরঞ্জামাদি কিন্যা ধুইয়্যা জামু। কোন চিন্তা নাই।

এ ব্যাপারে ভোলার একজন মুফতির সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, এই ধরনের লোক সমাজে খুবই কম। যারা এ ধরনের মন-মানষিকতার, তারা অন্যায় করতে পারে না। যদিও করে থাকে, মৃত্যুর পরে তাদের আল্লাহ পাক সহজে ক্ষমা করতে পারেন। আবু মিয়া বাপ্তা ডোমপট্টি এলাকার মৃত কালু মিয়ার ছেলে।

ছবি-৯।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

ফেব্রুয়ারি ২০২৩
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জানুয়ারি    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।