ভোলায় জলদস্যুর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থার দাবি

স্টাফ রিপোর্টার।
ভোলার ইলিশার জলদস্যু ফারুক বাহিনীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছে ২ নং ইলিশা ইউনিয়ন পরিষদ ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ।
শনিবার সকালে ভোলা প্রেসক্লাবে এই সংবাদ সম্মেলন করেছেন তারা।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সোহরাওয়ার্দী মাষ্টার বলেন ফারুক মাঝি একজন সাধারণ জেলে থেকে জলদস্যু বাহিনী খুলে আজ মেঘনা নদী নিয়ন্ত্রণ করছেন, তার কথা ছাড়া নদীতে উত্তর পশ্চিম হয়না, নদীতে খুঁটা জাল দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকার মাছ শিকার করছেন।
ফারুক বাহিনীর জুয়া, মাদক ও ইলিশা ঘাটে ড্রাম দিয়ে অবৈধ ভাসমান ঘাট নির্মাণে চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সম্পাদক বাধা দেওয়ায় নিজের অপরাধ আড়াল করতে চেয়ারম্যান হাছনাঈন আহমেদ হাসান মিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্র করেন ফারুক বাহিনী।
২৭৫০ জেলের মাঝে সুষ্ঠু ভাবে ২০ কেজি করে চাউল বিতরণ করার পরেও মিথ্যা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয় দস্যু ফারুক।
জলদস্যু ফারুক কে তদন্ত সাপেক্ষে আইনের আওতায় এনে ইলিশায় শান্তি শৃঙ্খলা ও অপরাধমুক্ত করতে প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান লিখিত বক্তব্যে সোহরাওয়ার্দী মাষ্টার।
সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন ২নং ইলিশা ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান হাছনাঈন আহমেদ হাসান মিয়া, আওয়ামীলীগের সভাপতি মিয়া সিরাজ, সহ সভাপতি হোসেন মিয়া, প্যানেল চেয়ারম্যান মোস্তফা মিয়া, বারেক পাটোয়ারী, ইউপি সদস্য লোকমান পাটোয়ারী, কামাল হোসেন রতন, মালেক মিঝি, ফখরুল মাল, শাহে আলম, রহমান হাওলাদার, মহিলা মেম্বার এর স্বামী ছায়েদ আলী জমাদার, ফরিদ সরদার, বাবুল, যুবলীগের সভাপতি আলাউদ্দিন, ছাত্রলীগের সভাপতি শাহীন, সাংগঠনিক সম্পাদক ছাদ্দাম হোসেনসহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সকল ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি সম্পাদক ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

জুন ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« মে  
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।