ভোলার বোরহানউদ্দিনে শিক্ষক দম্পতির উপর হালমার প্রতিবাদে মানববন্ধন // অবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবি

এম মইনুল এহসান , আমাদের ভোলা।

ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলার দেউলা শিবপুর দারুল আমান ইসলামীয়া দাখিল মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক আলহাজ্ব মোঃ ইউনুস (৫৭) ও তার স্ত্রী ফকির বাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ইয়ানুর বেগম ( ৫০) কে রাতের অন্ধকারে হত্যার উদ্দেশ্য বর্বর হামলা ও কুপিয়ে জখম করার প্রতিবাদে মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থী,শিক্ষক ও এলাকাবাসী। বরিবার সকাল ১১.৩০ মিনিটের দিকে বোরহান উদ্দিন উপজেলার সাচরা ইউনিয়নের স্কুল বাড়ি এলাকার দেউলা রজ্জব আলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। দেউলা শিবপুর দারুল আমান ইসলামীয়া দাখিল মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মোঃ জাকির হোসেন মেম্বারের সভাপতিত্বে এই মানববন্ধনে শুরুতে বক্তব্য রাখেন দেউলা শিবপুর দারুল আমান ইসলামীয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা একেএম ইদ্রিস। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বোরহান উদ্দিন কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ও জামিয়াতুল মোদাররেসিন বোরহানউদ্দিন উপজেলার সভাপতি মাওঃ এবিএম আহমদুল্লাহ আনসারি। এসময় আরো বক্তব্য রাখেন জয়া মহিলা আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওঃ আবদুল গনি, হাজির হাট ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওঃ মোঃ ইউসুফ, মজমের হাট ফাজিল মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোঃ মনিরুল ইসলাম, দেউলা শিবপুর সলেমা খানম বালিকা দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা হারুনর রশীদ, রজ্জব আলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিক মোঃ মোস্তফা কুদ্দুস, সহকারী শিক্ষক মাওঃ মোস্তফা কামাল, তালুকদার বাড়ি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিক মোঃ কামাল হোসেন ও ধর্মিয় শিক্ষক মাওঃ রফিকুল ইসলাম, সাচরা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য সহকারী মোঃ মাইনুদ্দিন প্রমুখ।
মানববন্ধনে এস্থানীয় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ২ হাজার শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী অংশগ্রহণ করে।
এসময় বক্তরা ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে হামলাকারি সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান। তারা বলেন আজ সন্ত্রাসীরা এলাকার সর্বজন শ্রদ্ধেয় শিক্ষক দম্পতিকে হত্যার উদ্দেশ্য হামলা করে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছেন। তাদের যদি অবিলম্বে আইনের আওতায় আনা না হয় তাহলে পুরো সমাজে এই অন্যায় ছরিয়ে যাবে। এসময় বক্তরা সহকারী শিক্ষক মোঃ ইউনুস ও তার স্ত্রী ইয়ানুর বেগমের সুস্থতা কামনা করেন।

উল্লোখ্য, গত মঙ্গলবার (১১ অক্টোবর) দিবাগত রাত আনুমানিক ২.৩০ এর দিক অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা ঘরের গ্রীল কেটে ঘরে প্রবেশ করে সহকারী শিক্ষক মোঃ ইউনুস ও তার স্ত্রী প্রধান শিক্ষিকা ইয়ানুর বেগম কে হত্যার উদ্দেশ্য কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। এসময় তাদের আত্বচিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা স্বর্ন অলংকার ও মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে আহতদের উদ্ধার করে বোরহান উদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পেরণ করা হয়। বুধবার বিকেলে লালমোহন সার্কেলের সহকারী পুলিশ ও সকালে বোরহান উদ্দিন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

ফেব্রুয়ারি ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জানুয়ারি    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।