দ্রুত সিদ্ধান্তের দাবীতে ভোলায় পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

আওলাদ খান,  স্টাফ রিপোর্টার।

পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের নিয়ে এখোনো কোনো সিদ্ধান্ত না দেয়ায় শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্য সারাদেশের ন্যায় ভোলায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর শিক্ষার্থীরা।
বুধবার সকালে ভোলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর সামনে ভোলা-চরফ্যাশন মহাসড়কের দুই পাশে দাড়িয়ে তারা তাদের দাবীগুলো তুলে ধরেন।
এসময় শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন দাবী তুলে ধরে বলেন,অন্যান্য বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ে ইতিমধ্যে শিক্ষামন্ত্রী তাদের অটো প্রমোশনের কথা জানিয়ে দিলেও পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর শিক্ষার্থীদের নিয়ে কোনো সিদ্ধান্ত এখোনো জানানো হয়নি,
ইতিমধ্যে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন,পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে স্বাস্থ্য বিধি মেনে পরীক্ষা নেয়া সম্ভব , তার এই বক্তব্যে শিক্ষার্থীরা বলেন,ক্লাশ না করে তারা কোনো পরীক্ষা দিতে রাজি নয়,যদি পরীক্ষা নেয়া সম্ভব হয় তবে কেনো ক্লাশ নেয়া সম্ভব হবে না।
৮ম পর্বের শিক্ষার্থী ও পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আওলাদ খান বলেন,আমরা ৮ম পর্বের শিক্ষার্থীরা একটি মাত্র ভাইভার জন্য আটকে আছি,৪ বছরের ডিপ্লোমা শেষ হলেও এখোনো বেকারত্বের অপবাদ নিয়ে পরিবারের বোঝা হয়ে আছি,
যেখানে সকল নিয়োগ চলমান সেখানে আমাদের ভাইবার জন্য কেনো আবেদন করতে পারবো না।
এসময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানিয়ে শিক্ষার্থীরা বলেন,অতি দ্রুত পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর সকল সেমিস্টারের পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত জানানোর জোর দাবী জানাই।
শিক্ষার্থীদের মানববন্ধনে সমর্থন জানিয়ে ভোলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদুল হাসান বাপ্পা বলেন,কারিগরি শিক্ষার্থীদের নিয়ে সংকট নিরসনে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রীকে অনুরোধ জানাই একই সাথে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট এর শিক্ষার মান উন্নয়নে উন্নত ল্যাব স্থাপন, শিক্ষক সংকট নিরসনে কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহন, ৮ম পর্বের ভাইবা নিয়ে দ্রুত ফলাফল প্রকাশ,চলমান সেমিস্টারের সিলেবাস কমিয়ে দ্রুত পরীক্ষা গ্রহন এবং পূর্ববর্তী সেমিস্টারে অটো প্রমোশনসহ শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে ৮ দফা দাবি উপস্থাপন করেন, দ্রুত দাবী বাস্তবায়নের জন্য শিক্ষামন্ত্রীকে ব্যাবস্থা করার জন্য অনুরোধ জানান।
এসময় শিক্ষার্থীদের সাথে উপস্থিত থেকে তাদের যৌক্তিক দাবীর সাথে সমর্থন জানিয়ে ভোলা পলিটেকনিক ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন বলেন,চলমান সংকট নিরসনে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে হবে,না হলে শিক্ষার্থীরা দাবী আদায়ে আন্দোলন করতে বাধ্য হবে,
তাই সংকট নিরসনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করি।
এসময় সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে উপস্থিত ছিলেন পলিটেকনিক ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আরাফাত রহমান ইমন,সাংগঠনিক সম্পাদক রমিজ মিয়া,দপ্তর সম্পাদক রহমত উল্লাহ মুন্না,সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক শাহাদাত হোসেন শিবলু,ভোলা টেকনিক্যাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হান্নান মিয়া,সহ সভাপতি, আমিনুল ইসলাম,রাকিবুল ইসলাম সিনবাদ, পৌর ছাত্রলীগ নেতা আলিফ,ফাহিম,
পলিটেকনিক ছাত্রলীগ নেতা সোহরাব হোসেন রিদয়,শাকিল, দিপ রাজ দে, প্রমুখ।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

নভেম্বর ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« অক্টোবর  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!