মনপুরায় ধর্ষনের অভিযোগে ছাত্রলীগ সভাপতি বহিষ্কার

কাজি মহিবুল্লাহ আযাদ, আমাদের ভোলা.কম।

ভোলা জেলার মনপুরা উপজেলার মনপুরা ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি রণিকে বহিস্কার করেছে ভোলা জেলা ছাত্রলীগ। সোমবার ৯ সেপ্টেম্বর জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃ ইব্রাহীম চৌধুরী পাপন ও সাধারন সম্পাদক মোঃ রিয়াজ মাহমুদ স্বাক্ষরিত এক জরুরি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ বহিস্কার আদেশ দেয়া হয়েছে। উল্ল্যখ্য মনপুরা উপজেলার সরকারি ডিগ্রি কলেজের সভাপতি রাকিব হাসান রনির বিরুদ্ধে একই কলেজের ছাত্রীকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে একাধিকবার ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ওই কলেজ ছাত্রী শুক্রবার রাতে মনপুরা থানায় রাকিবের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। মামলার এজহার ও ধর্ষণের শিকার কলেজছাত্রী থেকে জানা যায়, ভিকটিম ও ছাত্রলীগ সভাপতির বাড়ি মনপুরা উপজেলার মনপুরা ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের চরযতিন গ্রামে। তারা একই কলেজে পড়াশোনা করেন। এক বছর আগে ওই ছাত্রীতে প্রেমের প্রস্তাব দেন রাকিব হাসান রনি। এতে রাজি হননি কলেজছাত্রী। পরে ২০১৮ সালের ৬ জুন কলেজছাত্রীকে বিয়ের প্রস্তাব দেন রাকিব। এরপর তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সেই থেকে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। গত ২ সেপ্টেম্বর সোমবার দুপুরে কলেজছাত্রীকে বিয়ে করবে বলে রাকিবের বাড়িতে আসতে বলা হয়। বাড়িতে গেলে ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন রাকিব। সেই সঙ্গে বিয়ে করবে না বলে ছাত্রীকে বাসা থেকে বের করে দেন। ওই সময় ছাত্রী ঘর থেকে বের হতে না চাইলে তাকে মারধর করেন রাকিব। পরে স্থানীয়রা ছাত্রীকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌঁছে দেন। এ নিয়ে শুক্রবার রাতে থানায় মামলা করেন কলেজছাত্রী। এ বিষয়ে জানতে মনপুরা সরকারি ডিগ্রি কলেজের ছাত্রলীগ সভাপতি রাকিব হাসান রনিকে মোবাইলে পাওয়া যায়নি। মনপুরা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মোঃ ফোরকান আলী বলেন, মনপুরা সরকারি ডিগ্রি কলেজের সভাপতি রাকিব হাসান রনির বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করেছে কলেজছাত্রী। রনিকে গ্রেফতারের জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছন পুলিশ। অন্যদিকে ধর্ষিতা মনপুরা হাসপাতাল থেকে ভোলা সদর হাসপাতালে স্থান্তর করা হয়েছে

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

এপ্রিল ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« মার্চ  
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।