ভোলায় রাসুল (সাঃ) এর অবমাননাকারীর সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ড পাসের দাবিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান।

কাজী মহিবুল্লাহ আজাদ, আমাদের ভোলা।

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর প্রতি বিষোদগার ও কুরুচিপূর্ণ আবমাননাকর মন্তব্যকারী “গৌরাঙ্গ চন্দ্রদের” সর্বোচ্চ শাস্তিসহ মহান আল্লাহ, রাসূল (সাঃ) ও ইসলাম নিয়ে কাটক্ষকারী তথা ধর্ম অবমাননাককারীদের সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান রেখে সংসদে আইন পাশসহ ৩ দফা দাবিতে স্মারকলিপি দিয়েছে ভোলা জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদ।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১ টায় সংগঠনটির সভাপতি মাওলানা আবদুর রহমান খানের নেতৃত্বে ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল জেলা প্রশাসক তৌফিক -ই-লাহী চৌধুরী ও পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সারের হাতে স্মারকলিপি তুলে দেন।

৩ দফা দাবিগুলো হলো- অনতিবিলম্বে আল্লাহ, রাসুল ও ইসলাম অবমাননাকারীর সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদন্ডের বিধান রেখে সংসদে আইন পাশ করতে হবে। গৌরাঙ্গ চন্দ্র দের বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা দায়ের করে সর্বোচ্চ শাস্তি কার্যকর করতে হবে। ভোলাসহ সারাদেশে আল্লাহ, রাসুল ও ইসলাম অবমাননাকারীর সর্বোচ্চ শাস্তি দিতে হবে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সংগঠনের জেলা মুসলিম ঐক্য পরিষদের
সভাপতি মাওলানা আব্দুর রহমান খাঁন তালুকদার,
সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মাওলানা মোহাম্মদ মোবাশ্বেরুল হক নাঈম ,
সহ সভাপতি মাওলানা মুফতি ইয়াছিন নবীপুরী,
উপদেষ্টা -মাওলানা মহিউদ্দিন।
সহ সভাপতি আলহাজ্ব মুফতি আহাম্মদ উল্লাহ, মাওলানা মীর বেলায়েত হোসেন,মাওলানা আতাউর রহমান মোমতাজি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মোঃতরিকুল ইসলাম, প্রচার সম্পাদক মাওলানা নূরুল আমিন,সহ-প্রচার সন্পাদক মাওলানা মোঃআনোয়ার হোসাইন, দপ্তর সম্পাদক এইচ এম ইব্রাহীম, কার্যকরী সদস্য মাওলানা মোঃআব্দুল লতিফ, মাওলানা মোঃমাকসুদ উল্লাহ,মুহাদ্দিস আমীনুল হক নোমানী সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য গত ১৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ ভোলা জেলা শাখার সভাপতি গৌরাঙ্গ চন্দ্র দে কর্তৃক ফেইসবুকের ম্যাসেঞ্জারে মহানবী (স) কে অবমাননা করা হয়। এই ঘটনায় ভোলার তৌহিদি জনতা গৌরাঙ্গের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবী জানান। এই ঘটনায় পুলিশ গৌরাঙ্গ কে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

অক্টোবর ২০২১
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« সেপ্টেম্বর  
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।