মন্ত্রণালয়ের সবার ছুটি বাতিল কিন্তু স্বাস্থ্যমন্ত্রী মালয়েশিয়া !!

নিউজ ডেস্ক , আমাদের ভোলা.কম।

ঢাকাসহ সারাদেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ নিয়ে যখন দেশবাসী চরম অস্থিরতা ও উদ্বেগের মধ্যে আছেন, তখন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক দেশে নাকি দেশের বাইরে অবস্থান করছেন তা নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একাধিক সূত্র জানিয়েছে, তিনি সপরিবারে মালয়েশিয়ায় পারিবারিক সফরে গিয়েছেন। তবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা জানিয়েছেন, মন্ত্রী বন্যাদুর্গতদের সাহায্যার্থে তার নির্বাচনি এলাকা মানিকগঞ্জে অবস্থান করছেন। যদিও মানিকগঞ্জের জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেলায় আছেন এমন খবর তার জানা নেই।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী কোথায় এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রণালয়ের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক কর্মকর্তা জানান, তিনি বর্তমানে মালয়েশিয়ায় পরিবারের সঙ্গে অবস্থান করছেন। এর সত্যতা নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের একাধিক কর্মকর্তাও। তবে তারাও নাম প্রকাশে রাজি হননি। এ সময় কয়েকজন কর্মকর্তা বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, পুরো দেশ যখন ডেঙ্গু নিয়ে অস্থিরতায় আক্রান্ত, তখন স্বাস্থ্য বিভাগের সর্বোচ্চ ব্যক্তি কী করে দেশের বাইরে যান? একইসঙ্গে তারা একে চরম অপেশাদারিত্বমূলক আচরণ বলেও মন্তব্য করেন।

মন্ত্রণালয়ের কয়েকজন কর্মকর্তা বলেন, গত শনিবার (২৭ জুলাই) স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক সপরিবারে মালয়েশিয়া ভ্রমণে গিয়েছেন। সাতদিন পর তার দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রীর এপিএস ডা. আরিফের কাছে মোবাইল ফোনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মালয়েশিয়া গেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি প্রথমেই বলেন, ‘স্যার আছেন, উনিতো আছেন, সবকিছুর সঙ্গে কানেক্টেড আছেন। থাকার কথাতো, এই মুহূর্তে থাকার কথাতো, আমি নিজেও অফিসের বাইরে আছি, অসুস্থ তো। আপনি আমাদের পিএস সাহেবের সঙ্গে কথা বলেন প্লিজ।’

তবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মাঈদুল ইসলাম প্রধান বলেছেন, মানিকগঞ্জে বন্যার্তদের ত্রাণ দেয়ার জন্য তিনি পরশুদিন (রবিবার) থেকে তার নির্বাচনি এলাকা মানিকগঞ্জে অবস্থান করছেন। মাঝখানে জরুরি কাজে অল্প সময়ের জন্য ঢাকায় এসেছিলেন, আবার চলে গেছেন। আগামীকাল (বুধবার) দুপুরের পর অফিস করবেন।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, মানিকগঞ্জ বন্যাদুর্গত এলাকা। এটি তার নির্বাচনি এলাকা। বন্যা পরবর্তী কার্যক্রম এবং ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনার জন্য তিনি এলাকায় আছেন।

প্রতিবদেনে মানিকগঞ্জ প্রতিনিধির বরাত দিয়ে লিখা হয়েছে, ত্রাণ বিতরণের কাজে গত শনিবার থেকে তাকে দেখা যায়নি। দলের বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতা এবং ত্রাণ বিতরণের কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেও জানা গেছে, স্বাস্থ্যমন্ত্রী বর্তমানে মানিকগঞ্জে অবস্থান করছেন না।

মানিকগঞ্জের ডিসি এসএম ফেরদৌস জানান, ত্রাণ বিতরণ বা অন্য কোনও কাজে মন্ত্রী এলে আমার তা জানার কথা। তবে তিনি এসেছেন বলে কোনও তথ্য আমার জানা নেই।

এদিকে, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের মোবাইল ফোন নম্বরে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি। তার ফোন নম্বরে রোমিংয়ের শব্দ পাওয়া গেছে।

প্রসঙ্গত, ডেঙ্গু জ্বর উদ্বেগজনকভাবে বাড়ায় গতকাল এক আদেশে  স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর  ঈদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

সূত্র – বাংলা ট্রিবিউন

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

আগষ্ট ২০১৯
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জুলাই    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।