ভোলার লালমোহনে খুঁটিতে বেঁধে প্রতিবন্ধী যুবককে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ১

ইয়াছিনুল ঈমন, সম্পাদক, আমাদের ভোলা।
খুঁটিতে বেঁধে প্রতিবন্ধী যুবককে নির্যাতন, গ্রেপ্তার ১
ভোলার লালমোহন উপজেলার রমাগঞ্জে মন্দিরের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে প্রতিবন্ধী যুবককে মারধরের ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) রাতে অমানবিক ওই নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে সমালোচনার ঝড় ওঠে। পরে পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে তাপস মৃধা নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।

ভাইরাল হও‌য়া ভিডিওতে দেখা যায়, উপজেলার রমাগঞ্জ ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের নমগ্রামের স্বর্ণেরচর মন্দিরের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে ওই প্রতিবন্ধী যুবককে দুইজন মিলে লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি মারছে।

নির্যাতনের শিকার ওই প্রতিবন্ধী যুবকের নাম জয় চন্দ্র মিস্ত্রী। তিনি উপজেলার রমাগঞ্জ ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড নমগ্রামের মিস্ত্রি বাড়ির শ্যামল চন্দ্র মিস্ত্রীর ছেলে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে একই বাড়ির তাপস মৃধা ও অশিক মিস্ত্রী বন্ধুদের নিয়ে এলাকায় হাঁটছিলেন। এ সময় ওই প্রতিবন্ধী যুবক তাদের গায়ে হাত দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তাপস ও অশিক প্রতিবন্ধী জয়কে কয়েক দফা মারধর করেন। সর্বশেষ বিকেলে স্বর্ণেরচর মন্দিরের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে লাঠি দিয়ে অমানবিক নির্যাতন করে। এতে ওই যুবকের একটি হাত ভেঙে যায়। পরে গুরুতর আহত জয়কে রাত ১১টার দিকে লালমোহন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

জয়ের বাবা শ্যামল চন্দ্র মিস্ত্রী জানান, তাপস ও অশিক তার ছেলেকে মারধর করেছে এমন খবর পেয়ে তিনি বাড়ি যান। এ সময় অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যান।

লালমোহন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাকসুদুর রহমান মুরাদ জানান, এ ঘটনায় লালমোহন থানার একটি মামলার পাশাপাশি জড়িত থাকার অভিযোগে তাপস মৃধা নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

ফেব্রুয়ারি ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জানুয়ারি    
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।