ফেনিতে গৃহবধূর ক্ষত-বিক্ষত লাশ উদ্ধার

নিউজ ডেস্ক , আমাদের ভোলা.কম।

ফেনীর সোনাগাজীতে নৃশংসভাবে ছুরিকাঘাতে হাজেরা আক্তার (৩৫) নামে পাঁচ সন্ত্মানের জননীকে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা। ধারণা করা হচ্ছে গভীর রাতে তাকে ঘর থেকে কৌশলে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয়েছে। গত শুক্রবার রাতে উপজেলার চরদরবেশ ইউনিয়নের চর ইঞ্জুমান গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হাজেরা ওই গ্রামের আনার আহম্মদের স্ত্রী।

পুলিশ শনিবার সকালে নিহতের বসত ঘরের ২০ গজ দুরে একটি বাড়ির টয়লেটের ট্যাংকির ওপর থেকে ওই গৃহবধুর ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করে।

নিহতের স্বামী আনার আহাম্মদ জানান, শুক্রবার রাতের খাবার খেয়ে তার স্ত্রী ছোট তিন সন্তানকে নিয়ে নিজের ঘরে এবং তিনি আরেক সন্তানকে নিয়ে অপর রুমে ঘুমিয়ে পড়েন। ফজরের নামাজের আজানের পর জেগে উঠে স্ত্রীকে ঘরে দেখতে না পেয়ে তিনি খোঁজাখুজি শুরু করেন। কিছুক্ষণ পর ঘরের পাশেই বাড়ীর লোকজন পাশ্ববর্তী বাড়ীর বেলায়েতের টয়লেটের ট্যাংকির ওপর হাজেরাকে উপুড় হয়ে পড়ে থাকতে দেখেন। তাকে উদ্ধার করতে গিযে দেখা যায় ছুরির আঘাতে তার পেটের নাড়িভুড়ি বের হয়ে গেছে। ঘটনাস্থলে ছোট একটি ছুরি পাওয়া যায়।

আনার আহাম্মদ আরও জানান, তাদের সঙ্গে বাড়ী বা এলাকার কারো ঝগড়া বিবাদ নেই। তার স্ত্রীকে কারা হত্যা করেছে তিনি কিছুই জানেননা, শনিবার দুপুরে ফেনীর পুলিশ সুপার খন্দকার নুরুন্নবি, সোনাগাজী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার সাইকুল আহাম্মদ ভুঞা, মডেল থানার ওসি মইন উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ঘটনায় নিহতের ভাই সাইফুর রহমান মনির বাদী হয়ে সোনাগাজী মডেল থানায় অজ্ঞাতনামাদের আসামি করে মামলা দায়ের করেছেন। ময়না তদন্ত শেষে লাশ এদিন বিকালে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সোনাগাজী মডেল থানার ওসি মইন উদ্দিন জানান, গৃহবধুকে পেটে উপর্যপুরী চুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনাটি সর্বোচ্চ গুরত্ব দিয়ে অপরাধী শনাক্তের চেষ্টা চলছে।

সূত্র সমকাল

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

জুন ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« মে  
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।