সাংবাদিকের ওপর হামলায় পৌর কাউন্সিলরসহ কারাগারে ৮

আমাদের ভোলা.কম ডেস্ক।

জামালপুর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ইন্সপেক্টর আব্দুল কাদের মিয়া সাংবাদিকের ওপর হামলা ও নির্যাতন মামলার প্রধান আসামি পৌর কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুসহ ৮ জনের জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর খবর নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার ৮ আসামি চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসর্মপণ করে জামিন প্রার্থনা করলে বিচারক মো. সোলায়মান কবির নামঞ্জুর করে তাদের জেলহাজতে পাঠান।

মামলার ৯ আসামির মধ্যে পৌর কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুর ছেলে রাকিব (২৪) গ্রেফতারি পরোয়ানা মাথায় নিয়ে পলাতক রয়েছেন।

বাদী পক্ষের আনইনজীবী মো. ফজলুল হক বলেন, জামালপুর সদর সাব রেজিস্ট্রি অফিসে গত ২৮ মে দুপুরে জাল পচরা ও খারিজসহ জমি রেজিস্ট্রি সংক্রান্ত সকল জাল কাগজপত্র দিয়ে সাব রেজিস্ট্রি অফিসে দলিল জব্দ হওয়ার বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে ভেন্ডার ও পৌর কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান খান রুনুসহ ভূমিদস্যুরা কালের কণ্ঠের সাংবাদিক মোস্তফা মনজুর হামলা করে অমানুষিক নির্যাতন করে। ওই রাতেই মোস্তফা মনজু বাদী হয়ে পৌর কাউন্সিলর হাসানুজ্জামান রুনুসহ ৯ জনকে আসামি করে জামালপুর সদর থানায় মামলা করেন। 

মামলার দুই দিন পর ৩০ মে আদালতে আত্মসর্মপণ করে জামিনের প্রার্থনা করলে বিচারক মো. সোলায়মান কবির জামিন মঞ্জুর করেন। আসামিরা জামিনে বেরিয়ে আদালত প্রাঙ্গণে উপস্থিত সাংবাদিকের হাত-পা ভেঙে ফেলাসহ প্রাণনাশের হুমকি দেয়। গত ১ জুন ৪৮ জন সাংবাদিক জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে জামালপুর সদর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

সাংবাদিক মোস্তফা মনজুকে আসামিরা মেরে ফেলার হুমকি দেয়ায় তিনি ও তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন দাবি করে সাংবাদিকের ওপর হামলা ও নির্যাতন মামলার বাদী গত ৯ জুন আদালতে আসামিদের জামিন বাতিলের আবেদন করেন। আদালত আসামিদের জামিন বাতিল করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আদেশ দেন।

প্রসঙ্গত, সাংবাদিক মোস্তফা মনজুর ওপর হামলা ও নির্যাতনের প্রতিবাদ ও পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে নিরাপত্তার জামালপুরের সাংবাদিকরা আন্দোলন করে আসছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

অক্টোবর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« সেপ্টেম্বর  
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।