শিক্ষকরা নিজ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের প্রাইভেট পড়াতে পারবেন না : শিক্ষা উপমন্ত্রী 

অনলাইন ডেস্ক, আমাদের ভোলা।

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী বলেছেন, শিক্ষকরা নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের কোচিং বা প্রাইভেট পড়াতে পারবেন না। নিজেদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ঠিকমত পাঠদান না করে শিক্ষার্থীদের চাপের মধ্যে রেখে জিম্মি করে পয়সা দিয়ে পাঠদানের যে প্রবণতা রয়েছে তা নিয়ন্ত্রণে শিক্ষা আইন সন্নিবেশিত করা হয়েছে এবং তা বাস্তবায়নের চেষ্টা করা হচ্ছে।

সোমবার বিকেলে গাজীপুরের ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ডুয়েট) মেকানিক্যাল, ম্যানুফ্যাকচারিং অ্যান্ড প্রোসেস ইঞ্জিনিয়ারিং (আইসিএমএমপিই-২০২২)’ বিষয়ক তিন দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক কনফারেন্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

কোচিং ও প্রাইভেট পড়ানো নিয়ে উপমন্ত্রী আরও বলেন, আমরা নতুন কারিকুলামে যে পরিবর্তন এনেছি সেখানে এক্টিভিটিস লার্নিং, এক্সপেরেন্সিয়াল লার্নিংয়ের ওপর জোর দিয়েছি। সেগুলো আমরা যখন পূর্ণাঙ্গভাবে বাস্তবায়ন করতে পারবো তখন স্বাভাবিকভাবেই শিক্ষার্থীদের কোচিংয়ের ওপর নির্ভরশীলতা কমে যাবে।

তিনি বলেন, এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে তাড়াহুড়ার কিছু নেই, এত বেশি চিন্তিত হওয়ারও কিছু নেই। আমরা সেটা যথাসময়েই নেব। আমাদের সব আঞ্চলিক পরিচালকদের কাছে বন্যা এবং বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষার্থীদের তথ্য চাওয়া হয়েছে। আমরা খবর পেয়েছি সিলেট ডিভিশন, কুড়িগ্রাম , জামালপুর, শেরপুরসহ বিভিন্ন এলাকায় এখনও বন্যার পানি নামেনি। এ পানি নামার পর পূনর্বাসনের একটা সময়ও আমাদের দিতে হবে।

অনুষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মো. হাবিবুর রহমান। বিশেষ পৃষ্ঠপোষক ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আবদুর রশীদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কনফারেন্স চেয়ার ও মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. হিমাংশু ভৌমিক। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র – দৈনিক শিক্ষা

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

আগষ্ট ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« জুলাই  
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।