ভোলায় অন্তস্বত্তা গৃহবধূকে অমানষিক নির্যাতন, গলায় ফাস দিয়ে হত্যার চেস্টা

স্টাফ রিপোটার। আমাদের ভোলা.কম।

ভোলায় ৩ মাসের অন্তস্বত্তা গৃহবধূকে অমানুষিক নির্যাতনের পাশাপাশি ওড়না দিয়ে গলায় ফাস দিয়ে হত্যা চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙলাবার রাত ১০ টার দিকে ভোলার উওরদীঘলদী ইউনিয়নের ৬ নং ওয়াডের খায়েদের বাড়িতে এ নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। হামলায় আহত অন্তস্বত্তা গৃহবধু জান্নাত বেগম (২৫) ভোলা সদর হাসপাতালের সার্জারি ওয়াডে ভর্তি আছেন।
নির্যাতনে আহত গৃহবধূ জান্নাত বলেন আমি আমার স্বামী নিয়ে ঢাকা থাকি কিন্তু ঈদ উপলক্ষে আমি ভোলা আমার বাবার বাড়িতে এসেছি। আমার স্বামী ঢাকায় লিফট কোম্পানিতে চাকুরি করে। আমার স্বামী আমাকে যৌতুকের জন্য বেশ কয়েক বছর ধরে নির্যাতন করে আসছে। । তার নির্যাতনে নিরুপায় হয়ে আমি আমার স্বামীকে আমার বাবার কাছ থেকে কয়েক দফায় ৩ লক্ষ টাকা এনে দিয়েছি। ঢাকাতে স্থানীয় কাউন্সিলর এ বিষয় নিয়ে কয়েকবার শালিস ও করেছিল।
গত ১৮ তারিখ মঙলবার আমি আমার স্বামীসহ আমার বাবার বাড়িতে অবস্থান করতে ছিলাম। আমার শশ্বুর বাড়ির লোকজন গত মঙল বার আমাদের বাসায় রাতের খাবার খাওয়ার জন্য এসেছিল। খাওয়া শেষে আমার স্বামী আমার কাছে টাকা দাবি করল। আমি টাকা দিতে অস্বীকার করায় সে আমাকে বেধড়ক কিল ঘুষি মারতে লাগল ও আমার সারা শরীরে কামড়িয়ে অসংখ্য জখম করল।আমার আত্মচিৎকারে আমার স্বামীর ভাই, তার দুলাভাই ও তাদের সাথে আসা অন্যান্য লোকজন আমার রুমে দৌড়ে আসল। এসে তানজিল মাস্টার, মো: ইসমাইল, ইউসুফ ও আছমা মিলে আমাকে পেটানো শুরু করল ও একপর্যায়ে আমার গায়ের ওড়না দিয়ে আমার গলায় ফাস দিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে আমার বাবা, মা ও বাড়ির লোকজন এসে পড়লে ওরা আমাকে রেখে পালিয়ে যায়। তখন আমার পরিবারের লোকজন আমাকে ভোলা সদর হাসপাতালে এনে ভর্তি করায়। আমি সুস্থ হয়ে মামলা করব।
অভিযুক্ত স্বামী হান্নানের বাড়ি ভোলা সদর উপজেলার চরাসামাইয়া ইউনিয়নের ৪ নং ওয়াডে।
অভিযুক্ত হান্নানের সাথে যোগাযোগ করা হলে সে অভিযোগটি অস্বীকার করেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

ফেব্রুয়ারি ২০২৩
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জানুয়ারি    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।