প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেয়ে খুশি মনপুরার ২১৭ ভূমিহীন ও গৃহহীণ পরিবার 

মো কামরুল হোসেন সুমন,মনপুরা।

মনপুরায় মুজিববর্ষে ৬ষ্ট ধাপের প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেয়ে খুশি ২১৭ ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার। ঘর পেয়ে খুশি গৃহহীন পরিবারের মানুষ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভূমিহীন ও গৃহহীনদের স্থায়ীভাবে থাকার ব্যাবস্থা করে দিয়েছেন। আজ তাদের আর চিন্তা করতে হবেনা । এখন নিরাপদে থাকতে পারবেন।

মনপুরায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেয়ে খুশি উপকারভোগীরা।মনপুরায় প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেয়ে খুশি উপকারভোগীরা।

মঙ্গলবার সারা বাংলাদেশে একযোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৮হাজার ৫শত ৬৬ ভ’মিহীন –গৃহহীন পরিবারকে জমি ও গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রম উদ্ভোধনের পর পরেই মনপুরা ২১৭ ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মাঝে জমি ও গৃহ হসতান্তর করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) জহিরুল ইসলাম।

ঘর পেয়ে খুশি ভ’মিহীন ও গৃহহীন পরিবারের মানুষ। মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহারের ঘরে থাকব। আর আমাদের কোন কষ্ট হবেনা। অগে খুব কষ্টে ছিলাম। বর্ষায় বৃষ্টির পানিতে খুব কষ্ট করেছি। এখন খুব আরামে থাকব। ঘর পেয়ে আমরা খুব খুশি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য আমরা নামাজ পড়ে দোয়া করব । আমাদের জন্য বিনা পয়সায় সুন্দর ঘর করে দিয়েছেন। এখন আমাদের কোন চিন্তা নাই । আমরা ছেলে মেয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে আরাম আয়াশে থাকতে পারব। উপজেলা পরিষদ হলরুমে গৃহহীনদের মাঝে ঘর ও জমির কাগজপত্র হস্তান্তর অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রীর উপহার(ঘর) পাওয়া ২১৭ ভুমিহীন ও গৃহহীন পরিবার লোকজন।

প্রধানমন্ত্রীর উপহার(ঘর) ও জমির কাগজপত্র হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান ও আ’লীগ সাধারন সম্পাদক মোঃ জাকির হোসেন মিয়া,উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) জহিরুল ইসলাম,উপজেলা আ’লীগ সহসভাপতি একেএম শাহজাহান, দক্ষিন সাকুচিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ অলিঊল্যাহ কাজল, মনপুরা ইউপি চেয়ারম্যান আমানতউল্যাহ অঅলমগীর, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ টিপু সুলতান, উপজেলা প্রকৌশলী আশিকুর রহমান,মনোয়ারা বেগম মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক মো ছালাহউদ্দিনসহ উপজেলা বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারী দাপ্তরিক প্রধানগন, বিভিন্ন শিক্ষা প্যতিষ্ঠান প্রধান, সাংবাদিক ,জনপ্রতিনিধি ও গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জহিরুল ইসলাম বলেন, প্রধানমুন্ত্রীর উপহার ঘর নির্মানের কাজ শেষ হয়েছে। প্রতি পরিবারের জন্য ২ শতাংশ খাস জমির কবুলত রেজিঃ করে ঘর বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। উপকারভোগীদের মধ্যে আশ্রয়ন প্রকল্প-২ ৬ষ্ট ধাপের ২১৭টি প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর হস্তান্তর করা হয়েছে। এখন থেকে বরাদ্ধপ্রাপ্ত উপকারভোগীরা ঘরে বসবাস করতে পারবেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

জুলাই ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জুন    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।