কবি মোঃ আঃ কুদদূস এর ” চাঁদের বুড়ি “

কখনো তোমার বিশালতা দেখি
আবার কখনো দেখি উদারতা
কখনো তোমাতে নিরন্তর নিমগ্ন হই
কখনো চাতকের মতো তাকিয়ে রই
ভালোবাসার এ কী অদ্ভূত আচরণ?
কাছে পেলে নিজেকে হারাই,
দূরে গেলে কল্পনার তুলিতে
বিশালতার অনুপম অনুলিপি আঁকি।

কখনো মায়াবী হাসি দেখি,
আবার কখনো দেখি নির্লীপ্ত চাহনি
কখনো চাহনির ব্যাগ্রতায় অচেতন হই
কখনো অনুপম অনুভবে অপলক রই
অধরা ভালোবাসা দৃষ্টি জুড়ে দৃশ্যমান-
দৃষ্টির সন্নিকটে সৃষ্টি করি,
অপূর্ব ঐক্যের নিরন্তর নিমন্ত্রণ
কবে আবার বিশালতায় হারাবে এই মন।

কখনো আঁধার রাতে চাঁদ দেখি,
আবার কখনো দেখি চাঁদের হাসি
কখনো সুখের লাগি স্নিগ্ধ চাঁদ খুঁজি
ভাবি, চাঁদের বুড়ি মুক্তি পেল এই বুঝি
কখনো মেঘের ডানায় তাকিয়ে থাকি-
চাঁদকে ছোঁয়ার আক্ষেপে।
যদিও চাঁদ দূরে যায় নিরবধি
তবুও ঐ চাঁদের বুড়িকে বড্ড ভালোবাসি।

১৫ জুন ২০১৯
ঢাকা।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

ফেব্রুয়ারি ২০২৩
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জানুয়ারি    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।