খলিফাপট্টি ফেরদাউসিয়া হাফেজিয়া ও নূরানী নূরানী মাদ্রাসার হাফেজ ছাত্রদের পাগড়ী প্রদান

এইচ আর সুমন, বিশেষ প্রতিনিধি।

ভোলা শহরের ঐতিহ্যবাহী খলিফাপট্টি ফেরদাউসিয়া হাফেজিয়া ও নূরানী নূরানী মাদ্রাসার হাফেজ ছাত্রদের পাগড়ী প্রদান ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে। খলিফাপট্টি ফেরদাউসিয়া জামে মসজিদে বুধবার ২৬ই রমজান যোহুর বাদ, হিফজ সমাপনী ও বিদায়ী ২০ জন শিক্ষার্থীদের পাগড়ী প্রদান ও দোয়া মোনাজাতের অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন, জনাব আলহাজ্ব মাওলানা, মুফতি ও ফেরদাউসিয়া জামে মসজিদের খতিব, মোঃ মজির উদ্দিন। অনুষ্ঠানে এ বছর হাফেজি সম্পন্ন করা ২০ জন শিক্ষার্থীদের পাগড়ী পরিয়ে দেন অতিথিবৃন্দ।

উক্ত মহতী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন খলিফাপট্টি ফেরদাউসিয়া জামে মসজিদ ও হাফেজিয়া ও নূরানী মাদ্রাসার সভাপতি আলহাজ্ব মিয়া মোহাম্মদ ইউনুস ,বিশেষ অতিথি ছিলেন সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন সহ-সভাপতি আহমাদুল্লাহ খান সাহেব, যুগ্ন সম্পাদক শফি তালুকদার, প্রমুখ।

এ বছর হাফেজী সম্পন্ন করা এ প্রতিষ্ঠানের পাগড়ী প্রাপ্ত ২০ জন শিক্ষার্থীরা হলেন,(১) ভোলা সদর উপজেলা পূর্ব ইলিশা ইউনিয়নের জংশন এলাকার, লোকমান হোসেনের পুত্র হাফেজ মোঃ তানভীর আহমেদ, (২)বোরহানউদ্দিন উপজেলার মোঃ মনিরুল ইসলাম এর পুত্র হাফেজ মোঃ আব্দুল মমিন, (৩)ভোলার পশ্চিম ইলিশা ইউনিয়নের মোহাম্মদ কবির হোসেনের পুত্র হাফেজ মোঃ ইকরাম হোসেন, (৪)ভোলা বাপ্তা হাজিরহাট এলাকার, মাওলানাা মোহাম্মদ মহসিন আলম এর পুত্র হাফেজ মোঃ মাহমুদুল (মাহী),(৫) ভোলা বাংলাবাজার এলাকার মোহাম্মদ শফিউল হক এর পুত্র হাফেজ মোঃ রিয়াদুল ইসলাম, (৬)লালমোহন উপজেলার মাওলানা মোহাম্মদ কবীর হোসেনের পুত্র হাফেজ মোঃ নাদিম আহমেদ, (৭)ভোলার ভেলুমিয়া ইউনিয়নের মোঃ মোজাম্মেল হোসেন এর পুত্র হাফেজ মোঃ সোলাইমান আহমেদ, (৮)চরফ্যাশন উপজেলার মোহাম্মদ এমদাদুল হক এর পুত্র হাফেজ মোঃ আল এমরান, (৯)ভোলার ইলিশা সরদার হাট মোঃ জহিরুল ইসলাম এর পুত্র হাফেজ মোঃ মমিনুল ইসলাম,(১০) ভোলার উত্তর দিঘলদী মোঃ আমিরুল হোসেনের পুত্র হাফেজ মোঃ মিজানুর রহমান,
(১১)ভোলার পশ্চিম ইলিশা মোঃ নুরনবী এর পুত্র হাফেজ মোহাম্মদ ওমর ফারুক,(১২) দৌলতখান উপজেলার মোহাম্মদ ফিরোজ এর পুত্র হাফেজ মোঃ মেহেদী হাসান(১৩), লালমোহন উপজেলার মোহাম্মদ বশির আহমেদ এর পুত্র হাফেজ মোঃ আরিফুল ইসলাম,(১৪) ভোলার ভেলুমিয়া ইউনিয়নের মোহাম্মদ হারুন ফরাজী এর পুত্র হাফেজ মুহাম্মদ হাসনাইন,(১৫) ভোলার ভেলুমিয়া ইউনিয়নের মোহাম্মদ শাহাবুউদ্দিন এর পুত্র হাফেজ মোঃ নাহিদুল ইসলাম, (১৬)দৌলতখান উপজেলার মোহাম্মদ নূরুল ইসলামের পুত্র হাফেজ মাহমুদ (সিয়াম),(১৭) ভোলার আলীনগর ইউনিয়নের মোঃ হেলাল উদ্দিন এর পুত্র হাফেজ মোহাম্মদ শাহাদাত,(১৮) ভোলার বড় চরসামাইয়া ইউনিয়ন এর কাজী বশির আহমেদ এর পুত্র হাফেজ মোহাম্মদ মাহাদী হাসান, (১৯)লালমোহন উপজেলার মোহাম্মদ জয়নাল আবেদীন এর পুত্র হাফেজ মোহাম্মদ রেদওয়ান আহমেদ।(২০) খুলনা , বাগেরহাট জেলার আব্দুল গফফার এর পুত্র হাফেজ মোঃ রাইসুল ইসলাম।
যাদের পরশে এ প্রতিষ্ঠানের ২০ জন শিক্ষার্থী আল কোরআনের হাফেজ হলেন, তারা হলেন, শ্রদ্ধেয় আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা মিজানুর রহমান,দাঃবাঃ, হাফেজ মাওলানা মোঃ জামাল উদ্দিন ,দাঃবাঃ হাফেজ মাওলানা মোঃ জাকারিয়া দাঃবাঃ হাফেজ মাওলানা মোঃ মাকসুদুর রহমান দাঃবাঃ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আলহাজ্ব মিয়া মোহাম্মদ ইউনুস বক্তব্যে বলেন, গত বছরে এ প্রতিষ্ঠান থেকে ১৪ জন শিক্ষার্থী আল কোরআনের হাফেজ হয়েছিলেন। এবছর আল কোরআনের হাফেজ হলেন ২০ জন শিক্ষার্থী।
ইহকাল ও পরকালের মুক্তির জন্য ইসলামী জ্ঞানের বিকল্প নেই এ প্রতিষ্ঠান থেকে বের হওয়া নবীব হাফেজ বৃন্দ পবিত্র কোরআনের শিক্ষায় জীবন গড়ে সমাজের আদর্শ মানুষ হিসাবে আলো ছড়াবে। তারা সমাজের সকল কুসংস্কার রোদে ও ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক জীবন গড়তে অনুপ্রেরণা জোগাবে। অরাজনৈতিক এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি নতুন প্রজন্মকে দ্বীনী শিক্ষায় বেশ ভূমিকা রাখবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। সমাজের বিত্তবান ব্যক্তিদেরকে এ প্রতিষ্ঠানটিকে সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য আহ্বান জানান। এ সময় ভোলা শহরের গণ্যমান্য ব্যক্তি ও মুসুল্লিরা উপস্থিত ছিলেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

মে ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« এপ্রিল  
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।