ভোলায় ঘুষ না নেয়ায় এসিল্যান্ডকে হুমকি, দুইজনের জেল-জরিমানা

ইয়াছিনুল ঈমন, আমাদের ভোলা.কম।

ভোলা সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (এসিল্যান্ড) মো. কাওছার হোসেনকে ঘুষের প্রলোভন ও হুমকি দেয়ায় দুইজনকে আটক করে সাজা দিয়ে দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বুধবার দুপুরে সদর উপজেলা এসিল্যান্ডের কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন ভেদুরিয়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়াডের মেম্বার খলিল হোসেন নলী (৬০) ও মোশারেফ হোসেন (৫৫)। এদের মধ্যে খলিল হোসেন নলীকে এক মাসের কারাদণ্ড ও মোশারেফ হোসেনকে দুই হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন এসিল্যান্ড মো. কাওছার হোসেন।

ভোলা সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (এসিল্যান্ড) মো. কাওছার বলেন, গতকাল মঙ্গলবার ভোলা সদর উপজেলার চরচটকিমারার মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে ড্রেজার দিয়ে অবৈধভাবে মাটি ও বালু উত্তলনের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হয়। এ সময় ভেদুরিয়া এলাকার তেঁতুলিয়া নদীতে অবৈধভাবে ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তলন করার সময় একটি ড্রেজার জব্দ করা হয়।এর সঙ্গে জড়িতরা ওই সময় পালিয়ে যায়। তখনই জব্দকৃত ড্রেজারটি্ নিলামের মাধ্যমে  বিক্রয় করা হয় । এ ঘটনার কোরনে বুধবার দুপুরে ওই ড্রেজার ছাড়িয়ে নিতে খলিল হোসেন নলী ও মোশারেফ হোসেন দুইজন অফিসে এসে আমাকে ঘুষের প্রলোভন দেখায়। এতে আমি অস্বীকৃতি জানালে তারা হুমকি দেয়। ফলে তাদের আটক করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সাজা দেয়া হয়।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

ফেব্রুয়ারি ২০২৩
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জানুয়ারি    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।