ভোলায় করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় জেলা প্রশাসনের বিশেষ সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত

বিশেষ প্রতিনিধি , আমাদের ভোলা.কম।

ভোলা জেলায় করোনা ভাইরাস এর প্রাদুর্ভবা মোকাবেলায় জেলা প্রশাসন এর বিশেষ সমন্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়। রবিবার সকালে ভোলা জেলা প্রশাসক এর সম্মেলন কক্ষে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলা প্রশাসক মো: মাসুদ আলম ছিদ্দিক এর সভাপত্বিতে সভায় আলোচনায় অংশ নেয় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মমিন টুলু,পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার, সিভিল সার্জেন ডা. রতন কুমার ঢালী,ভোলা পৌর মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান মনির সহ সরকারে বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা বৃন্দ। এসময় আলোচনায় করোনা মোকাবেলায় ভোলার স্বাস্থ্য সেবার মান,সামাজিক দূরুত্ব নিশ্চিত করন,ত্রান বিতরন ব্যবস্থাপনা,আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন,করোনা আক্রান্ত ব্যাক্তির মৃত্যু দাফন কার্যক্রম ব্যবস্থাপনা সহ নানা বিষয় আলোচনায় উঠে আসে। এছাড়াও  করোনা মোকাবিলায়  সরকারি ও বেসরকারি সংগঠন সহ নানা সামাজিক সংগঠন কাজ করে যাচ্ছে বলে জানানো হয়। জেলা প্রশাসন এর পক্ষ থেকে বেশ কয়েকটি বিষয় নিয়ে কাজ করছে। এর মধ্যে বাজার মনিটরিং, মোবাইল কোর্ট পরিচালনা, ত্রাণ বিতরণ,সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করা, হোম কোয়েরেন্টাইন নিশ্চিত করা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। এসময় গুজব রোধে মিডিয়ার গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা রাখার আহবান জানায়। এসময় ভোলা জেলার  সিভিল সার্জেন ডা. রতন কুমার ঢালী জানায়, বর্তমানে  ভোলা জেলায় করোনা সন্দেহে ২জন রোগীকে আইসোলেশনে নেওয়া হলেও তাদের শরীরে করোনা পাওয়া যায়নি। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে  জেলায় ২২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ভোলা জেলার ৬ উপজেলা থেকে এ নমুনা সংগ্রহ করা হয়। সদর উপজেলায় ৬ জন, তজুমদ্দিনে ৪, দৌলতখানে ৪, লালমোহনে ২, বোরহানউদ্দিনে ৪ ও চরফ্যাশন উপজেলায় ২ জনসহ মোট ২২ জন। মার্চ হতে জেলায় বিদেশ ফেরত নাগরিকের সংখ্যা ১ হাজার ৪শ এর মতো। কোবিড ১৯ চিকিৎসায় সদর হাসপাতালে ২০ শয্যা আইসোলেশন প্রস্তুত করা হয়েছে । প্রয়োজনে আরো বাড়ানো হবে। এছাড়র ৯ টি কন্ট্রল রুম খোলা হয়েছে। তবে করোনা চিকিৎসার জন্য কৃত্রিম শ্বাস প্রশ্বাসের যন্ত্র বা ভেন্টিলেটর নেই । ফলে আইসোলেশন ইউনিটে আক্রান্ত রোগীর জন্য ভেন্টিলেটর খুবই গুরুত্বপূর্ন। এছাড়াও আইসিইউ,সিসিইউ নেই। তাই এগুলোর জন্য স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে লেখা হয়েছে বলে জানান। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সকলকে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলে সচেতন হওয়া আহবান করেন তিনি। এছাড়াও জেলা প্রশাসন এর পক্ষ থেকে করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে দিন মজুর শ্রমজীবী মানুষের আহার ও বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ভোলায় বিশেষ তহবিল গঠন করা হচ্ছে। এ তহবিলে অনুদান পাঠানোর জন্য  সোনালী ব্যাংক ভোলা শাখায় “করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্বেচ্ছায় অনুদান” নামে একটি একাউন্ট খোলা হয়েছে। যার নং-০৪০১০০২০০০৯২৩। এ নাম্বারে যে কেউ অনুদান প্রদান করতে পারেব বলে জানান জেলা প্রশাসক মো: মাসুদ আলম ছিদ্দিক।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

জুন ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« মে    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।