ভোলায় আন্তঃজেলা মটরসাইকেল চোর চক্রের দুই মূল হোতা আটক

সাইফুদ্দিন ছোটন , আমাদের ভোলা.কম ॥
ভোলা সদর ও শশীভূষণ থানা থেকে আন্তঃজেলা মটরসাইকেল চোর চক্রের মূল হোতা জাকির ও শাহীনকে আটক করেছে ভোলা থানা পুলিশ। সদর থানার এসআই মোঃ রিপনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম তাদেরকে আটক করে। তাদের বিরুদ্ধে মটরসাইকেল চুরি, গরু চুরি সহ একাধিক চুরি মামলা রয়েছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে। জাকির হোসেন শশীভূশন থানার রসুলপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা জয়নাল আবেদীনের ছেলে ও শাহীন হাওলাদার দক্ষিণ আইচা থানার চরমাইনকা গ্রামের মৃত বাবুল হাওলাদারের ছেলে।
থানা সূত্রে জানা গেছে, ভোলা সদরে গাজীপুর রোড এলাকার বাসিন্দা মোঃ রুবেল হোসেনের ভোলা-ল ১১০৪৩৪ মটর সাইকেলটি গত ২ এপ্রিল রাতে ঘরের গেইট কেটে আন্তঃজেলা মটর সাইকেল চোর চক্রের মূল হোতা জাকির হোসেন ও শাহীন হাওলাদার সহ সংঘবদ্ধ চোরচক্র নিয়ে যায়। রুবেল হোসেন অনেক খোঁজাখুঁজি করে মটর সাইকেল না পেয়ে ভোলা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। রোববার সকালে চরফ্যাশনের দক্ষিণ আইচা থানার ৩নং ওয়ার্ডের চরমাইনকা গ্রামের মৃত বাবুল হাওলাদারের ছেলে শাহীন হাওলাদারকে তার ভোলার গাজীপুর রোডস্থ শ্বশুর বাড়ী থেকে ডেকে এনে সন্দেহভাজন জিজ্ঞাসা করলে সে মটর সাইকেল চুরি কথা স্বীকার করে। পরে শাহীনকে ভোলা থানায় পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে শাহীন মটরসাইকেল চুরির কথা স্বীকার করে বিস্তারিত তুথ্য দেয়। তার তথ্যানুযায়ী ভোলা থানা পুলিশ চরফ্যাশনের শশীভুশন থানার রসুলপুর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের জয়নাল আবেদিনের ছেলে আন্তঃজেলা মটরসাইকেল চোর চক্রের মূল হোতা জাকির হোসেনকে তার এলাকা থেকে আটক করে। জাকিরকে জিজ্ঞাসাবদ করে অভিযান চালিয়ে মটরসাইকেল উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। জাকির হোসেন ও শাহীন হাওলাদারকে ভোলা থানায় এনে জিজ্ঞাসাবদ চলছে বলে থানা সূত্রে জানা গেছে। জাকির ও শাহীন দীর্ঘদিন ধরে মটরসাইকেল, গরু চুরি সহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকা-ের সাথে জড়িত এবং তাদের বিরুদ্ধে একাধীক মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« আগষ্ট  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।