ভোলার সন্তান ঢাকার ৩৬নং ওয়ার্ড ব্র‍্যাক সভাপতি ও আ.লীগ নেতা রাসেল মালের খাদ্যে বিতরণ।

বিশেষ প্রতিনিধি।
বর্তমান বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো দেশেও ভয়াবহ মহামারি সংকটময় অবস্থার মধ্যদিয়ে যাচ্ছে। দেশ এখন করোনায় ভয়াবহতার কারনে লক ডাউনে আওতায় দেশের সবকটি জেলার মানুষ ।পাশাপাশি দিন দিন বাড়ছে আক্রান্তর সংখ্যা। তবে এই মহামারিতে দেশের অসহায় খেটে খাওয়া নিন্ম আয়ের মানুষ গুলি সবচেয়ে খাদ্য সংকট ও দুর্যোগময় অবস্থার সম্মুখীন হতে হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

দেশের এই জাতীয় সংকট অবস্থায় শ্রমজীবী অসহায় মানুষের খাদ্য সামগ্রী দিতে মানবিক সহয়তা ও ত্রান বিতরণ করে যাচ্ছে দেশের সরকারী ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান সহ অসংখ্য সংগঠন। কেউবা আবার ব্যক্তিগত উদ্যোগে সাহায্য খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন।
তারই ধারাবাহিকতা রাজধানী ঢাকার রমনা হাতিরঝিল থানা আওয়ামী লীগের ত্রান ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ৩৬ নং ওয়ার্ডের ব্র‍্যাক এনজিওর সভাপতি, পপি এন্টারপ্রাইজ চেয়্যারমেন ভোলার আলীনগর ইউনিয়নের কৃতি সন্তান মোঃ রাসেল মাল এর তত্বাবধায়নে ৩-শত হত-দরিদ্র ও শ্রমজীবী গরিব মানুষের মাঝে এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন।

আজ রবিবার সকালে ৩৬ নং ওয়ার্ডের হাতির ঝিল থানার ও মধুবাগ এলাকার নিন্ম আয়ের মানুষের মাঝে করোনা সচেতনতা নীতি অবলম্বন করে এইসকল মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী প্রতিটি বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দেন। এসময় খাদ্যে সামগ্রী বিতরণকালে ৩৬ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আলহাজ্ব তৈমুর রেজা খোকনের নেতৃত্বে ৭কেজি চাল,২কেজি আটা, ২ কেজি ডাল ও ১লিটার তৈল, করোনা সেনিটেসন সামগ্রী মাস্ক, লাইফবয় সাবান,ও একটি ডিটারজেন্ট পাউডার প্রত্যেক পরিবারের নারী ও পুরুষের মাঝে ১টি করে প্যাকেট তুলে দেন ব্রাক এনজিওর সভাপতি রাসেল মাল। এসময় ব্র‍্যাক সভাপতি রাসেল মাল বলেন সবাইকে সরকারী নীতিমালা মেনে চলে ঘরে থাকার আহবান জানান। পাশাপাশি করোনা সংক্রামক এড়াতে আতংকিত নাহয়ে সচেতন হতে পরামর্শ দেন। এছাড়া পর্য়ায়ক্রমে এসহোযোগীতা অব্যাহত থাকবে বলেও জানান তিনি।

উক্ত ত্রান ও খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে ব্র‍্যাক এনজিও সাধারন সম্পাদক শিবলী সাদিক সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা এসময়ে খাদ্যে সামগ্রী বিতরণে সহযোগিতা করেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

জুলাই ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জুন    
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।