ফেনীতে ফেসবুক লাইভে এসে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা

নিউজ ডেস্ক , আমাদের ভোলা.কম।

ফেনীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক লাইভে এসে স্ত্রীকে কুপিয়ে করে হত্যা করেছে এক যুবক। বুধবার দুপুরের দিকে ফেনী পৌরসভার পূর্ব বারাহীপুর ভূঞা বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর স্বামী টুটুল ভুঁইয়াকে (৩২) গ্রেফতার করেছে ফেনী মডেল থানা পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, বিগত তিন বছর আগে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার গুণবতি ইউনিয়নের আকদিড় গ্রামের সাহাব উদ্দিনের মেয়েকে বিয়ে করে টুটুল। বিয়ের পর থেকে নানা কারণে তাদের পারিবারে কলহ লেগেই থাকতো। তাদের সংসারে ১৮ মাস বয়সী একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

আজ বুধবার দুপুরের দিকে ওই যুবক ফেনী শহরের পূর্ব বারাহীপুর ভূঞা বাড়িতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লাইভে আসেন। ১ টা ৩৮ মিনিটের সময় প্রচারিত ওই লাইভে থেকেই তিনি তার স্ত্রীকে হত্যা করেন।

ফেসবুক লাইভে এসে হত্যাকারী টুটুল বলেন, ‘প্রিয় দেশবাসী, আমাকে ক্ষমা করে দেবেন। আজকে আমার কারণে আমার পরিবার ধ্বংস, যার কারণে ধ্বংস তাকে এই মুহূর্তে শেষ করে দিলাম।’

এ ঘটনায় পরিবারের অন্য কেউ দায়ী নয় দাবি করে টুটুল তার মেয়ে ও ভাই-বোনদের দেখে রাখার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানান।

ফেনী মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক সাজেদুল ইসলাম পলাশ জানান, টুটুল তার স্ত্রীকে ওড়না দিয়ে দুই হাত পেছনের দিকে বেঁধে দা দিয়ে গলা কেটে নৃশংসভাবে হত্যা করেছেন। খবর পেয়ে পুলিশ মৃত দেহটি উদ্ধার করে ফেনী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে এবং ঘাতক স্বামীকে গ্রেফতার করেছে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে টুটুল পুলিশকে জানিয়েছেন, তিনি ঢাকায় অবস্থানকালে তার স্ত্রী তাহমিনা পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। এটা নিয়ে তাদের মধ্যে কলহ তৈরি হয়। এছাড়াও তাহমিনার বাড়ি থেকে টাকা চেয়ে মানসিক হয়রানি করা হতো বলে দাবি করেন টুটুল।

আটকের পর টুটুল পুলিশের কাছে খুনের কথা স্বীকার করেছেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

জুন ২০২৪
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« মে    
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।