সালাতে পুরুষের পোশাক

★নজরুল ইসলাম খোকনঃ
★মহান আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা
বলেনঃ”হে বনী আদম! তোমরা প্রত্যেক
সলাতের সময় সুন্দর পোশাক পরিধান
করো; আর তোমরা আহার করো এবং
পান করো,তবে অপচয় করো না। নিশ্চয়ই
তিনি অপচয়কারীকে পছন্দ করেন না।
(সূরা আ’রাফ ৭ঃ৩১)।
সলাতে দাঁড়ানোর সময় সামর্থানুযায়ী
পরিপূর্ণ ও ভালো পোশাক পরে নিতে হবে,
যার মাধ্যমে লজ্জাস্হান আবৃত হওয়ার
সাথে সাথে সৌন্দর্যের প্রকাশ ও ঘটবে এবং অন্তত এতটুকু খেয়াল রাখতে হবে,
যার ফলে পোশাক তাক্বওয়ার পোশাকে
পরিণত হয়।
★পুরুষের পোশাকঃ
★একজন পুরুষকে তার সামর্থানুযায়ী
শালীনতার পোশাক পরতে হবে-এটা-ই
বিধান। যে কোন পোশাক যা সামাজিক
ভাবে শোভনীয় তা সলাতের জন্যও
গ্রহনীয়।
★সলাতের সময় উভয় কাঁধ ঢাকা জরুরী
(সহীহ বুখারী হা/৩৫৫;আবূ দাঊদ হা/৬২০)।
★এত টাইট পোশাক পরিধান করা যাবে
না,যাতে শরীরের ভাঁজ ফুটে উঠে এবং
বসতে ও সলাতে রুকু-সিজদা করতে
কষ্ট হয় (বা সলাতে ধ্যান ভঙ্গ হয়)।
★পুরুষের পোশাক যে মহিলাদের পোশা-
কের অনুরূপ না হয়।
★পোশাক পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন হতে হবে।
★সুন্দর পোশাক পরিধানে কোন আপত্তি
নেই,কারণ আল্লাহ সৌন্দর্য পছন্দ করেন,
তবে এরূপ পোশাক পরিধান করে অহং-
কার প্রকাশ করলে তার পরিণাম ভালো
নয়। নাবী (সাঃ)বলেছেনঃ হালালের মধ্যে
যা ইচ্ছা খাও,যেমন ইচ্ছা পরিধান করো,
তবে তাতে যেন দু’টি জিনিস না থাকে,
অপচয় এবং অহংকার।(সহীহ বুখারী,
কিতাবুল লিবাস;ইবনে মাজাহ হা/৩৬০৫;
নাসাঈ হা/২৫৫৯; মুসনাদে আহমাদ হা/
৬৬৯৫; সহীহ জামী হা/৪৫০৫;মিশকাত
হা/৪৩৮১)।
★সাজ-সজ্জার মাধ্যমে শরীরের শোভা
বর্ধন করার ক্ষেত্রে সীমা অতিক্রম করবে
না;আবার ব্যক্তির মর্যাদার চেয়ে নিম্ন
মানের পোশাক ও পরবে না।
★অমুসলিমদের সাদৃশ্য হয় এমন পোশাক পরিধান করা যাবে না।(আবূ
দাঊদ হা/৪০৪৩; সহীহ তারগীব ওয়াত
তারহীব হা/৪৩৮১)।
★পুরুষদের জন্য রেশনের পোশাক
পরিধান করা হারাম(সহীহ বুখারী-৫৮২৯;
সহীহ মুসলিম-৫৫১০;মিশকাত-৪৩২১)।
★পুরষের জব্য যে কোন পোশাক টাখনুর
নীচে পরাও হারাম(সহীহ বুখারী-৫৭৮৭;
নাসাঈ-৫৩৩১;মুসনাদে আহমাদ-৯৩০৮)।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

এপ্রিল ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« মার্চ  
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।