লালমোহনে হা-মীমের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে পরিচালকের সংবাদ সম্মেলন

তপতী সরকারঃ লালমোহন প্রতিনিধি, আমাদের ভোলা.কম।
লালমোহন হা-মীম রেসি: স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালক মোঃ রুহুল আমিনকে জড়িয়ে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে লালমোহন প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মোঃ রুহুল আমিন অভিযোগ করেন, তার পাশ্ববর্তী মোঃ আবুল কালাম খোকন হাওলাদার গংরা মোঃ রুহুল আমিনের বিরুদ্ধে একটি পুকুরের ২ লাখ টাকার মাছ নষ্ট করে ফেলছেন বলে অভিযোগ করেন। ওই পুকুর প্রকৃতপক্ষে হা-মীম একাডেমির পরিচালক মোঃ রুহুল আমিনের ক্রয় করা।
সংবাদ সম্মেলনে মোঃ রুহুল আমিন অভিযোগ করেন, এসএ ২৪ খতিয়ানের ২২৮ দাগের ১৪ শতাংশ ও ২২৯ দাগে ১০ শতাংশ জমি মোট ২৪ শতাংশ বিনা কাগজে দখলের পায়তারা চালাচ্ছে। উক্ত জমির প্রকৃত মালিক ফারুক গং এর কাছ থেকে ১৫/০১/২০২০ ইং তারিখে ৩৮৯/২০২০ নং দলিলের মাধ্যমে জমি ক্রয় করেন মোঃ রুহুল আমিন। উক্ত জমি কেনার পর আবুল কালাম খোকন হাওলাদার গংরা তাদের কোন কাগজপত্র না থাকায় বিভিন্ন জায়গায় দৌড় ঝাপ শুরু করে। কোথাও কাগজপত্র দেখাতে না পেরে পরাজিত হয়ে ভোলা সিনিয়র সহকারী জজ আদালতে উক্ত সম্পত্তির উপর নিষেধাজ্ঞা দানের জন্য আবেদন করেন। আদালতে মোঃ রুহুল আমিন কাগজপত্র পেশ করলে আদালত ২৩/০২/২০২০ ইং তারিখে উক্ত নিষেধাজ্ঞার আবেদন নামঞ্জুর করেন। এরপর আবার আবুল কালাম গংরা লালমোহন সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বরাবার বিচার দাখিল করলে সেখানেও তাদের আবেদন খারিজ করে দেওয় হয়। এরপর উক্ত জমির উপর পুকুরের মাছ নিধনের অভিযোগ এনে মোঃ রুহুল আমিনের সুনাম ক্ষুন্ন করার চেষ্টা করে যাচ্ছেন।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

এপ্রিল ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« মার্চ  
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।