ভোলায় লঞ্চ থেকে নদীতে পড়ে যাত্রী নিখোঁজ, ২৪ ঘণ্টায়ও সন্ধান মেলেনি

ইয়াছিনুল ঈমন, আমাদের ভোলা.কম।

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলায় যাত্রীবাহি লঞ্চে ওঠার সময় মেঘনা নদীতে পড়ে যাওয়া যাত্রী মো: হানিফের (৬০) সন্ধান এখনও মেলেনি। বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটার দিকে চরফ্যাশনের বেতুয়া ঘাটে লঞ্চে ওঠার সময় মেঘনা নদীতে পড়ে নিখোঁজ হন তিনি। উপজেলার জিন্নাগড় ইউনিয়নের ৩ নং ওর্য়াডের বাসিন্দা তিনি।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, নাতিকে নিয়ে হানিফ নামের ওই বৃদ্ধ ঢাকা যাওয়ার জন্য বেতুয়া ঘাট দিয়ে ফারহান-৫ লঞ্চে ওঠেন। পরে নাতীকে লঞ্চে রেখে তিনি পানি ও রুটি কেনার জন্য পল্টুনে নামেন। তখন লঞ্চটি ছেড়ে দিলে তিনি দ্রুত ঘাটে থাকা কর্ণফুলী-১২ লঞ্চে উঠে পিছনের দিক দিয়ে ফারহান-৫ লঞ্চে উঠতে গিয়ে নদীতে পড়ে যান।
এ সময় হানিফ হাত উচিয়ে বাঁচার আকুতি জানালেও ফারহান-৫ লঞ্চের কেউ তাকে উদ্ধারে এগিয়ে আসেনি। প্রায় ১০ মিনিট পর যাত্রীদের চিৎকারের ফারহান-৫ লঞ্চ থেকে রশি বেঁধে একটি বয়া নিক্ষেপ করলেও ততক্ষণে পানিতে ডুবে যান হানিফ।
চরফ্যাশন থানার ওসি মো. এনামুল হক শুক্রবার দুপুর ৩ টার দিকে এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, নিখোঁজ ব্যক্তির এখনও কোনো সন্ধান মলেনি। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা কাজ করছেন। এ বিষয়ে নিখোঁজের পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ অভিযোগ করেনি। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে একটি সাধারণ ডাইরি (জিডি) করা হয়েছে।’


ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« আগষ্ট  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।