বর্তমানে অভিনেত্রী, করোনা পরিস্থিতিতে ফের নার্সের দায়িত্বে ফিরলেন তিনি

নিউজ ডেস্ক, আমাদের ভোলা.কম।

‘কাঞ্চলি’ ছবিতে অভিনয় করে দারুণ জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন অভিনেত্রী শিখা মালহোত্রা। সহ-অভিনেতা হিসেবে পেয়েছিলেন সঞ্জয় মিশ্রকে। যে ছবি সিনেবিশেষজ্ঞদের কাছে বেশ চর্চিত এবং প্রশংসিতও হয়েছিল। সেই অভিনেত্রীই কিনা দেশের স্বার্থে, দশের স্বার্থে করোনা মোকাবিলায় ফের নার্সের দায়িত্বে ফিরলেন। মুম্বইয়ের হাসপাতালে এখন তাঁর নিঃশ্বাস ফেলার সময়টুকুও নেই। গ্ল্যামারাস জীবন ছেড়ে বিপদের মুহূর্তে যেভাবে করোনা আক্রান্তদের সেবা করে চলেছেন তিনি, তা আবার প্রমাণ করে দিল যে সমাজে কিছু মানুষের মধ্যে এখনও বেঁচে রয়েছে মনুষ্যত্ব।

মহারাষ্ট্রে এখন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ২০০ ছুঁই-ছুঁই। অতঃপর স্বাস্থ্য পরিকাঠামো ঠিক রাখতে হলে প্রয়োজন আরও বেশি সংখ্যক অভিজ্ঞ ডাক্তার-নার্সদের। সেকথা স্মরণ করেই দুর্দিনে মানুষের সেবা করতে ফিরলেন নিজের দায়িত্বে। শুধু তাই নয়, এই কঠিন সময়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে অবসরপ্রাপ্ত চিকিৎসক ও সেবিকাদেরও তিনি আহ্বান জানিয়েছেন মানুষের সেবায় ফের যোগ দিতে। এই মুহূর্তে যোগেশ্বরী পূর্বের বালাসাহেব ঠাকরে ট্রমা হাসপাতালের আইসোলেশন বিভাগে জরুরি পরিষেবায় রয়েছেন শিখা মালহোত্রা।

২০১৪ সালে দিল্লির সফদরগঞ্জ হাসপাতালের বর্ধমান মহাবীর মেডিক্যাল কলেজ থেকে নিজের নার্সিংয়ের পড়াশোনা শেষ করেন শিখা। যদিও পরে অভিনয়জগতে পা রাখায় নার্সিংয়ের কাজ আর তাঁর করা হয়নি। কিন্তু মারণ ভাইরাসের এমন মহামারী প্রভাবে চারদিকে আতঙ্ক শুরু হওয়ায়  নার্সিংয়ের কাজে ফের যোগ দেন শিখা। করোনার এমন ভয়াবহ পরিস্থিতিতে যেভাবে শিখা এগিয়ে এসেছেন তাতে নিঃসন্দেহে তাঁকে করোনা-যোদ্ধা বলাই যায়। বলিউডের খ্যতনামা ফোটোগ্রাফার ভাইরাল ভয়ানি ইনস্টাগ্রামে শিখার ছবি শেয়ার করে এই খবর প্রকাশ্যে এনেছেন। ইন্ডাস্ট্রিতে যোগ দেওয়ার আগে নার্সিং শিখেছিলেন শিখা। মহারাষ্ট্রে করোনার এমন ভয়াবহ প্রকোপে ফিরলেন সেবিকার দায়িত্বে।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

আগষ্ট ২০২০
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« জুলাই  
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
২৯৩০৩১ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!