শীতের পোশাক আলমারিতে তোলার আগে যা যা করবেন

অনলাইন ডেস্ক, আমাদের ভোলা।

এবারের শীতকালটা যেন যাই যাই করেও যাচ্ছেই না। তবে কমতে শুরু করেছে তীব্র শীতের প্রকোপ। কয়েকদিনের মধ্যেই শীতের পোশাকের জায়গা হবে আলমারিতে। বছরজুড়ে এখানেই থাকবে পোশাকগুলো। উল বা পশমি কাপড়গুলো ফাঙ্গাস বা ধুলাবালিতে যেন সেগুলো নষ্ট না হয় সেজন্য থাকছে কিছু টিপস।

উঠিয়ে রাখার আগে ধুয়ে নিতে হবে

মাত্র বারকয়েক পরা হয়েছে- এটা ভেবে না ধুয়ে তুলে রাখবেন না কাপড়। সোয়েটার, জ্যাকেট বা থার্মালস না ধুয়ে উঠিয়ে রাখলে ব্যাকটেরিয়া, ধুলা বা গন্ধ মাসের পর মাস উলেই আটকে থাকবে। এসব পোশাক ড্রাই ক্লিনিং করাতে পারেন বা বাসাতেই ধুতে পারেন। ওঠানোর আগে শুকিবে নেবেন ভালো করে।

আর্দ্রতা কম এমন স্থানে রাখুন

স্যাঁতসেঁতে পরিবেশ বা ঘরে আলমারি রাখবেন না। এতে কাপড়ে দ্রুত ফাঙ্গাস পড়ে যায়। শুষ্ক ও পরিচ্ছন্ন স্থানে রাখবেন মূল্যবান শীতের পোশাকগুলো।

ভ্যাকুয়াম ব্যাগে রাখুন

পশমের পোশাক বাতাসহীন ব্যাগে প্যাক করুন। এতে শুধু শীতের পোশাক রাখতে জায়গা কম লাগবে তাই নয়, অতিরিক্ত আর্দ্রতা এবং ধুলোও ঢুকবে না। আর্দ্রতা শুষে নেওয়ার জন্য কিছু সিলিকা বল রাখতে পারেন। ভ্যাকুয়াম ব্যাগে প্যাকিংয়ের ঝামেলা না চাইলে বক্সের মধ্যেও রাখতে পারেন।

টিপস

শীতের পোশাক ঝুলিয়ে রাখবেন না কখনও। দীর্ঘদিনের জন্য ঝুলিয়ে রাখলে পোশাক নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

পোশাকের ভাঁজে ন্যাপথালিন রেখে দিতে পারেন। পোকা বাসা বাধতে পারবে না তাহলে।

মাঝে মাঝে পোশাক বের করে রোদে দেবেন।

 

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

মে ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« এপ্রিল  
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১ 

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।