ভোলায় উক্তত্যের প্রতিবাদ করায় নারীকে কুপিয়ে জখম

স্টাফ রিপোটার।
ভোলায় উক্তত্যের প্রতিবাদ করায় ৩ নারীকে জখম করার ঘটনা ঘটেছে । ভোলা শহরের পৌরসভার ২ নং ওয়াডে এই হামলার ঘটনা ঘটে । হামলায় আহতরা হলেন ফাতেমা আক্তার নিশু, ফরিদা বেগম ও হাজেরা বেগম। ফরিদা বেগম ও হাজেরা বেগম প্রাথমীক চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি গেলেও হামলায় মারাত্মক জখম নিশুকে প্রথমে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও তার অবস্থা খারাপ হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।
আহত নিশু অভিযোগ করে বলেন ২ নং ওয়াডের পাখির পোল এলাকার শাহে আলম চৌধুরী সড়কের মো: আবু সুফিয়ানের ছেলে মুকুল এলাকার একজন চিন্নিত বখাটে ও মাদক সেবি। আমাদের বাসার সামনে বসে মুকুল সব সময় আড্ডা মারে ও নেশা করে আমাদের বাসার মহিলাদের উক্তত্য করে । গত ১৬ তারিখ সকালে মুকুল আমাদের বাসার সামনে আমার ভাবী ফরিদাকে কুপ্রস্তাব দেয় এতে আমার ভাবী প্রতিবাদ করলে মুকুল আমার ভাবীকে দা দিয়ে কোপ দেয়। ভাবীর চিৎকারে আমি ও হাজেরা এগিয়ে এসে তাকে বাচানোর চেস্টা করলে মুকুল আমার মাথায় দা দিয়ে কোপ দেয় । আমার আত্ম চিৎকারে এলাকাবাসী এগিয়ে আসলে মুকুল পালিয়ে যায়। আমার মাথায় দা দিয়ে কোপ দেয়ার কাারনে মাথায় ১০ টি সেলাই দেয়া লেগেছে।

আহত নিশু আরো বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেখানে মাদকের ব্যাপারে কঠিন অবস্থানে রয়েছে সেথানে মুকুল মাদক গ্রহন করে আমাদের উপর হামলা করার দুঃসাহস দেখিয়েছে। আমি মুকুলের গ্রেফতার এবং দৃস্টান্ত মুকুল শাস্তির দাবি করছি পাশাপাশি ভোলার গনমানুষের নেতা সংসদ সদস্য তোফায়েল আহমেদ, ভোলার জেলা প্রশাসক ও ভোলা পুলিশ সুপারের কাছে সুবিচার র্প্রাথী।
এ হামলার ঘটনায় ভোলা সদর থানায় একটি মামলা করা হয়েছে মামলা নং ৫২।
এব্যাপারে জানতে অভিযুক্ত মুকুলের সাথে যোগাযোগের চেস্টা করা হলেও মামলার কারনে মুকুল আত্মগোপনে থাকায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

ফেব্রুয়ারি ২০২৩
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
« জানুয়ারি    
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮  

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।