ভোলায় আনুষ্ঠানিকভাবে গীতা শিক্ষা কেন্দ্রের যাত্রা শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক, আমাদের ভোলা.কম:
ভোলায় উৎসবমুখর পরিবেশে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছে গীতা শিক্ষা কেন্দ্র (গীতা স্কুল)। শনিবার (২ ফেব্রুুয়ারী) সন্ধায় শহরের চরনোয়াবাদ শ্রী শ্রী শ্মশান কালী মাতার মন্দিরে এ স্কুলে উদ্বোধন করা হয়। ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের দ্বারা পরিচালিত ও হিন্দু কল্যান ট্রাষ্ট্রের পৃষ্টপোশকতায় এ স্কুলটি প্রতিষ্ঠা করা হয়।
গীতা শিক্ষা কেন্দ্র উদ্বোধন উপলক্ষে আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন, হিন্দু কল্যান ট্রাষ্টের উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম।
বক্তব্য রাখেন, জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অধ্যক্ষ দুলাল চন্দ্র ঘোষ, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের আহবায়ক অভিনাশ নন্দি, জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সাধারন সম্পাদক ও ভোলা বিআরডিবি চেয়ারম্যান গৌরাঙ্গ চন্দ্র দে, ঐক্য পরিষদের সদস্য সচিব প্রভাষক ধ্রুব হালদার।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, দিলীপ বৈদ্দ, ক্ষিতিশ রায়, মন্দির কমিটির সাধারন সম্পাদক সুমন দত্ত প্রমুখ।
এ গীতা শিক্ষা কেন্দ্রটি চালুর মধ্যদিয়ে এলাকার শিক্ষার্থীরা গীতা শিক্ষা অর্জন করতে পারবে। এ নিয়ে সরকারিবাবে ৬টি ও বেসরকারিভাবে আরো ২৪টি স্কুল পরিচালিত হয়ে আসছে।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত হতে হলে গীতা স্কুলের বিকল্প নেই। এখান থেকেই কোমলমতী হিন্দু শিক্ষার্থীরা গীতা ও ধর্ম সম্পর্কে জ্ঞান অর্জন করতে পারবে।
জেলার প্রতিটি মন্দিরে গীতা স্কুল প্রতিষ্ঠা করা গেলে শিক্ষার্থীরা কুব সহজেই ধর্মীয় শিক্ষা গ্রহন করতে হবে। এ সময় বক্তারা প্রতিটি মন্দিরে স্কুল প্রতিষ্ঠায় সকলের সহযোগীতার আহব্বান জানান। পরে স্কুলের অর্ধ-শতাধিক শিক্ষাদের মাঝে শিক্ষা উপকরন বিতরন করা হয়।

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« আগষ্ট  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।