ভারতের হামলার প্রতিবাদে এলওসি জুড়ে লাগাতার বোমাবর্ষণ পাকিস্তানের

অনলাইন ডেস্ক, আমাদের ভোলা.কম।

ভারতের প্রত্যাঘাতের পরেও বদল নেই পাকিস্তানের। সীমান্তে ব্যাপক গোলাবর্ষণ শুরু করেছে পাকিস্তান সেনাবাহিনী। জম্মু-কাশ্মীরের রাজৌরি সেক্টরে পাকিস্তান ব্যাপক শেলিং শুরু করেছে পাকিস্তান। শুধু রাজৌরিই নয়, আখনুর, কৃষ্ণা ঘাঁটি সহ আন্তজাতিক সীমান্ত বরাবর একাধিক জায়গাতে হেভি শেলিং করছে পাকসেনা। ভারতের প্রত্যাঘাতের গোলাবর্ষণের পরিমাণ বাড়িইয়েছে পাকিস্তান। ভারী অস্ত্রের সাহায্যে এই হামলা চালাচ্ছে পাকিস্তান সেনা। যদিও পালটা জবাব দেওয়া হচ্ছে ভারতীয় সেনার তরফেও। এ খবর দিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম কলকাতা২৪।

একেবারে খোলা হাতে পাকিস্তানকে জবাব দিচ্ছে ভারতীয় সেনা। পাকিস্তানকে জবাব দেওয়ার জন্যে এবার হেভি অস্ত্র ব্যবহার করেছে ভারতীয় সেনার জওয়ানরাও। যেভাবে লাগাতার সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করছে তা যুদ্ধের উস্কানি ছাড়া আর কিছু না বলেই মত সামরিক মহলের।

প্রসঙ্গত, আজ মঙ্গলবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) ভোর রাতে নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে অধিকৃত কাশ্মীরের জঙ্গি ঘাঁটিতে হামলা চালায় ভারতীয় বায়ু সেনা। ভারতীয় যুদ্ধবিমান মিরাজ ২০০০-এর সাহায্যে এদিন ভোর সাড়ে তিনটে নাগাদ ওই হামলা চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা এএনআই।

মুজফফরাবাদ সেক্টরের সকল জঙ্গি ঘাঁটি সম্পূর্ণ ধ্বংস করে দিয়ে আসে ভারতীয় বায়ুসেনা। মুরি মুড়কির মতো ১০০০ পাউন্ড বোমা বর্ষণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা এএনআই। আর এরপরেই লাইন অব কন্ট্রোলে (এলওসি)-তে ব্যাপক গোলাবর্ষন শুরু করে পাকিস্তান সেনা। ভারতীয় সেনাবাহিনীর ছাউনি টার্গেট করে এই হামলা চালানো হয়। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা তৈরি হয়েছে।

অন্যদিকে, যুদ্ধকালীন তৎপরতায় সীমান্ত সংলগ্ন এলাকা থেকে সাধারণ মানুষকে সরানোর কাজ শুরু হয়েছে। কারণ ভারতের প্রত্যাঘাতের পর পাকিস্তান চুপ করে বসে থাকবে না।। আগামীদিনে গোলাবর্ষনের পরিমাণ আরও বাড়বে বলে মনে করছে ভারতীয় সেনা। আর সেজন্যে সব দিক থেকে তৈরি হচ্ছে ভারতীয় সেনা।

সূত্র – কলকাতা ২৪

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« আগষ্ট  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।