শাশুড়িকে কম্বল এনে দেয়ায় গৃহবধূর আত্মহত্যা

ডেস্ক রিপোট, আমাদের ভোলা.কম।

কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে লেবু বেগম (৩০) নামে এক গৃহবধূ ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। সোমবার ভোররাতে উপজেলার দলদলিয়া ইউনিয়নের দুর্গম চরাঞ্চলের উত্তর রথিদেব এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ১০ বছর পূর্বে উপজেলার দলদলিয়া ইউনিয়নের উত্তর রথিদেব চরের আবদুল আজিজের ছেলে আমিনুল ইসলামের (৩৮) সঙ্গে পার্শ্ববর্তী চিলমারী উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের উত্তর খামার এলাকার এবলাস উদ্দিনের কন্যা লেবু বেগমের (৩০) বিয়ে হয়। এরপর লাবিকা খাতুন (০৯) নামে তাদের একটি কন্যাসন্তান হয়।

রোববার স্বামী আমিনুল ইসলাম চরাঞ্চলের হাট থেকে একটি ছাগল কেনেন। এ সময় তার মা রহিমা বেগমের (৬০) জন্য হাট থেকে একটি কম্বল কিনে আনেন। মায়ের কম্বল আনাকে কেন্দ্র করে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। এরই জের ধরে সোমবার ভোররাতে সবার অজান্তে ঘরের ভেতর গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন এক সন্তানের জননী লেবু বেগম।

এরপর সকালে আমিনুল ইসলাম তার শ্বশুরকে ফোনে বিষয়টি জানালে তিনি থানা পুলিশকে খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে সোমবার বিকালে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুড়িগ্রাম মর্গে প্রেরণ করেছেন।

উলিপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, আত্মহত্যার ঘটনায় ইউডি মামলা করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে হত্যা না আত্মহত্যা তা নির্ণয় করা যাবে।

(সূত্র – যুগান্তর)

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« আগষ্ট  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।