কবি মোঃ আঃ কুদদূস এর কবিতা “আমার স্বাধীনতা”

আমার স্বাধীনতা

মাতৃক্রোড়ে মমতায় মাথা রেখে পূর্ণিমার পূর্ণশশী
দেখে দেখে চাঁদের বুড়ির গল্প বলা।
আমার স্বাধীনতা
রক্তচক্ষুর সব চোখরাঙানি উপেক্ষা করে করে
নিরন্তর সত্য-ন্যায়ের পথে চলা।

আমার স্বাধীনতা
ফাগুনের আগুন ঝড়া দিনে শহীদ মিনারের
পাদদেশ ঝাঁঝালো মিছিলে মুখরিত করা।
আমার স্বাধীনতা
ঝঞ্জা বিক্ষুব্দ বৈরি আবহাওয়ায় ছিন্ন হওয়া আলেয়ার ঘরে পৌঁছে দেয়া আলোকধারা।

আমার স্বাধীনতা
নীলগিরির উঁচু চূঁড়ায় দাঁড়িয়ে নীলাকাশে মাথা
তুলে প্রিয় মাতৃভূমিকে দেখা।
আমার স্বাধীনতা
ক্ষুধার্ত ছিন্নমূল আসমানীদের অন্ন বস্ত্রে সুসজ্জিত
অনাবিল সমাদৃত ছবি আঁকা।

আমার স্বাধীনতা
নদীভাংগা বাস্তহারা কিশোরী বোনের একটি
ছোট্ট সুখের সংসার গড়ে দেয়া।
আমার স্বাধীনতা
শাপলা বনে লাল-নীল-সাদা শাপলায় ভরা ঝিলে হিমেল হাওয়ায় ডোঙা নাও বাওয়া।

আমার স্বাধীনতা
দক্ষিণের নীল জলরাশির তরঙ্গমালার মুখে
দাঁড়িয়ে বলা ঐ আমার বাংলাদেশ।
আমার স্বাধীনতা
উত্তরের সারি সারি আম কাঠালের বাগানে মৌ মৌ গানে মুখরিত শীতল ছায়া-অপূর্ব,অশেষ।

আমার স্বাধীনতা
শাশ্বত বাংলার দীঘল প্রান্তর জুড়ে নতুন ফসলের
মৌ মৌ ঘ্রাণে আঙিনা ভরা।
আমার স্বাধীনতা
ভাটিয়ালি গানের সুরে সুরে বহমান নদীর বুকে
নৌকায় বর্ণিল পাল তুলে ধরা।

আমার স্বাধীনতা
একাত্তরের শহীদ মুক্তিসেনার জননীর মুখে উন্নত বাংলাদেশের সমুজ্জ্বল প্রতিচ্ছবি আঁকা।
আমার স্বাধীনতা
নির্জন প্রান্তরে চাঁদনী রাতের নিস্তব্দতায় তাল-তমালের বাগানে নিষ্পলক তাকিয়ে থাকা।

আমার স্বাধীনতা
মা-বাবা, ভাই-বোন, ছেলে-মেয়ে নিয়ে সাগর সৈকতে দাঁড়িয়ে সমুখের দিগন্ত জোড়া বাংলাদেশ দেখা।
আমার স্বাধীনতা
সাতই মার্চের রেসকোর্সের ভাষণ শুনে শুনে ঘুমিয়ে পড়ে স্বপ্নে লাল সবুজের পতাকায় অবিনাশী বাংলাদেশ আঁকা।

আমার স্বাধীনতা
হরিদ্রা ক্ষেতে দূরন্ত কিশোর-কিশোরীর হাতে লাল সবুজের পতাকা নিয়ে উর্ধ্বশ্বাসে ছুটে চলা।
আমার স্বাধীনতা
হৃদয়ের অফুরান অব্যক্ত ভালোবাসাগুলো শুধু কবিতার ছত্রে ছত্রে নির্ভয়ে ফুটিয়ে তোলা।

১৯ জানুয়ারি ২০১৯
সমিল মুক্তক ছন্দ

ফেসবুকে লাইক দিন

আর্কাইভ

সেপ্টেম্বর ২০২২
শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
« আগষ্ট  
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০

সর্বমোট ভিজিটর

counter
এই সাইটের কোন লেখা অনুমতি ছাড়া কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ!
দুঃখিত! কপি/পেস্ট করা থেকে বিরত থাকুন।